সেঞ্চুরি পার করলো ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি ফেসবুক লাইভ

বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেসবুক পেজ থেকে লাইভ অনুষ্ঠানের সেঞ্চুরি পূরণ করে রীতিমতো সাড়া ফেলেছে ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি। বৃহস্পতিবার (৬ মে) রাতে ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি ফেসবুক লাইভের ১০০ তম পর্ব উদযাপন করা হয়। 

‘ফেসবুক লাইভের সেঞ্চুরিতে প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা’ বিষয়ে বিশেষ পর্বে সভাপতিত্ব করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. সহিদ আকতার হুসাইন।

ফেসবুক পেজে এমন আয়োজনের জন্য ইউনিভার্সিটির জনসংযোগ  বিভাগ ও  স্টুডেন্ট অ্যাফেয়ার্স বিভাগকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার জানামতে কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই এমন লাইভ সেশন পরিচালনা করেনি। লাইভগুলোতে ইতিহাস, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সংস্কৃতি, আন্তর্জাতিক অবস্থা ও করোনা ইত্যাদি বিষয় উঠে এসেছে বিভিন্ন পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে যুক্ত হওয়া বিশিষ্ট ব্যক্তিদের আলোচনায়।’


অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি ফাউন্ডেশন ও ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান মো. ইসমাইল জবিউল্লাহ। বিশেষ অতিথি ছিলেন কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক তাহমিনা আহমেদ, ফ্যাকাল্টি অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজির ডিন অধ্যাপক ড. মাহফুজুর রহমান, ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নাজলা ফাতমী ও ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আবু মোহাম্মাদ আব্দুল্লাহ। শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইংরেজি বিভাগের ছাত্রী মিফতাউল জান্নাতি সিনথিয়া। অনুষ্ঠানটি গবেষণা ও উপস্থাপনা করেন ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির জনসংযোগ বিভাগের পরিচালক সাজেদ ফাতেমী। 

ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান মো. ইসমাইল জবিউল্লাহ তার বক্তব্যে বলেন,  ‘ফেসবুক লাইভে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতদের অংশগ্রহণ অনুষ্ঠানকে অনেক বেশি সমৃদ্ধ করেছে। সেই সঙ্গে এ দেশের মন্ত্রী, ছয়জন উপাচার্য, দেশ-বিদেশের নামি-দামি চিকিৎসক, গবেষক, বিজ্ঞানী, বুদ্ধিজীবি, শিল্পী, গীতিকার, সংগীত পরিচালক, সাহিত্যিক, শিক্ষক, পুলিশ, সাংবাদিক, পরিবেশ বিজ্ঞানী, রাজনৈতিক বিশ্লেষক সবাই এসে আমাদের অনেক বেশি সম্মানিত করেছেন।’ 

এ সময় এতো কম সময়ে এতগুলো পর্ব সফলভাবে সম্পন্ন করার জন্য ইউনিভার্সিটি প্রশাসন ও জনসংযোগ বিভাগকে ধন্যবাদ জানান তিনি।  

কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক তাহমিনা আহমেদ বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেসবুক  পেজ থেকে ১০০ লাইভ সম্পন্ন হওয়ায় আমি খুব গর্বিত। তবে এই লাইভগুলো আরো ভালো করতে ছাত্রছাত্রীদের অংশগ্রহণ আরো বেশি প্রয়োজন। সেইসঙ্গে ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবকদের কথাও শুনতে চাই।’   

ফ্যাকাল্টি অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজির ডিন অধ্যাপক ড মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘করোনাকালে ফেসবুকে এক দেড় ঘণ্টা করে এতগুলো লাইভ করতে পারা অনেক চ্যলেঞ্জিং ব্যাপার ছিল। সেই চ্যালেঞ্জ সহজেই মোকাবিলা করে সম্পন্ন করা এই  লাইভ অনুষ্ঠানগুলো বিশ্ববিদ্যালয় ও  ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে একটা যোগসূত্র তৈরি করেছে।’  

অনুষ্ঠানটির পরিকল্পনা ও সমন্বয়কারী এবং উপস্থাপক সাজেদ ফাতেমী বলেন, ‘আজ আমার জন্য খুব আনন্দের দিন। ফেসবুকে নিয়মিত লাইভ অনুষ্ঠান ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটিতে এবারই প্রথম অনুষ্ঠিত হচ্ছে। শুরুটা করেছিলাম ২০১৯ সালের ৭ মে। দীর্ঘ পথচলায় সহযোগিতা দেয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগের শিক্ষক- শিক্ষার্থী এবং কর্মকর্তা-কর্মচারিদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন সাজেদ ফাতেমী। 

 অনুষ্ঠানে সদ্য প্রয়াত ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সাবেক চেয়ারম্যান রেজাকুল হায়দারের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়।      


মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh