চমেকে ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা, গ্রেফতার ২

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনায় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার (৩০ অক্টোবর) রাতে কলেজ ক্যাম্পাস থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। 

তারা হলেন- রক্তিম দে (২১) ও এনামুল হোসেন ওরফে সীমান্ত (২১)। দুজনই চমেক এমবিবিএস দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। রক্তিম ১১ নম্বর ও এনামুল  এজাহারভুক্ত ১৫ নম্বর আসামি।

গতকাল সকালে ক্যাম্পাসে মাহাদি জে আকিব নামের এক ছাত্রকে মারধরের ঘটনায় এ মামলা হয়। এতে ১৬ জনের নাম উল্লেখ করে ২৪ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলার বাদী হলেন ৫৮তম ব্যাচ পঞ্চম বর্ষের শিক্ষার্থী তৌফিকুর রহমান।

পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল কবির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

গতকাল সকালে ও আগের দিন শুক্রবার মধ্যরাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ছাত্রাবাস ও ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের বিবাদমান দুটি গ্রুপের মধ্যে দুদফা সংঘর্ষের পর শনিবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। রাতেই আবাসিক শিক্ষার্থীরা হল ছেড়ে চলে যায়।

সংঘর্ষে মাহফুজুল হক (২৩), নাইমুল ইসলাম (২০) ও মাহাদি জে আকিব হোসেন (২০) নামে তিনজন আহত হয়েছেন। তাদের চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে আকিব হোসেনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। তার মাথার হাঁড় ভেঙ্গে গেছে।

চমেক হাসপাতালের আইসিইউ বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. রঞ্জন কুমার নাথ জানান, আকিবের মাথায় অস্ত্রোপচার শেষে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে।

এদিকে সংঘর্ষের ঘটনায় সার্জারি বিভাগের প্রফেসর ডা. মতিউর রহমানকে আহ্বায়ক করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন-কমিউনিটি মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মুকেশ কুমার দত্ত, মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. আরিফুর রহমান, হোস্টেল কমিটির চেয়ারম্যান ডা. মিজানুর রহমান চৌধুরী ও ছাত্রাবাসের তত্ত্বাবধায়ক ডা. রিজোয়ান রেহান।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //