প্রাথমিকে ছাত্র পরিষদ নির্বাচন ২ জুন

গণতন্ত্রের চর্চা ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি শিক্ষার্থীদের শ্রদ্ধাশীল করার অংশ হিসেবে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্র পরিষদ নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এজন্যে আগামী ২ জুন সারা দেশের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্র পরিষদের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১২ মে) রাতে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (সাধারণ প্রশাসন) মো. নজরুল ইসলামের সই করা অফিস আদেশ থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

অফিস আদেশে বলা হয়, আগামী ১৪ থেকে ১৬ মের মধ্যে সহকারী উপজেলা বা থানা শিক্ষা কর্মকর্তা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রধান শিক্ষক ও এসএমসির (স্কুল ম্যানেজিং কমিটি) সভাপতিদের অবহিত করবেন। এরপর ১৭ থেকে ২১ মে বিদ্যালয় পর্যায়ে এসএমসি, শিক্ষক, অভিভাবক ও ছাত্র-ছাত্রীদের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হবে।

এরপর আগামী ২২ মে নিয়োগ করা হবে নির্বাচন কমিশনার। পরদিন (২৩ মে) ভোটার তালিকা প্রকাশ ও নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে। ২৪ মে মনোনয়ন আহ্বান, ২৮ মে মনোনয়ন জমা, ২৯ মে মনোনয়ন বাছাই ও বৈধ প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করা হবে।

এতে আরো বলা হয়, ৩০ মে মনোনয়ন প্রত্যাহার ও চূড়ান্ত প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হবে। এরপর ২ জুন সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ শেষে ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

এর আগে, ২০১০ সালে সর্বপ্রথম ছাত্র পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই বছর সারাদেশের ১৯টি জেলার ২০টি উপজেলায় ১০০ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সরাসরি নির্বাচনের মাধ্যমে ছাত্র পরিষদ গঠন করা হয়। এই ছাত্র পরিষদের কার্যক্রম স্থানীয় জনসাধারণ, ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষকদের মাঝে বিপুল আগ্রহ ও উৎসাহ-উদ্দীপনার সৃষ্ট করে।

এরপর ২০১১ সালেও সারাদেশে ৭৪১টি বিদ্যালয়ে সরাসরি নির্বাচনের মাধ্যমে ছাত্র পরিষদ গঠিত হয়। এরপর ২০১২ সালে সারাদেশে ১৩ হাজার ৫৮৩টি বিদ্যালয়ে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

২০১৩ সালে ছাত্র পরিষদের কার্যক্রমকে বিস্তৃত করতে সারাদেশের সকল জেলা-উপজেলায় সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই পরিষদ গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কিন্তু নানা জটিলতায় সেটি আর সম্ভব হয়নি।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //