সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে জাবিতে মানববন্ধন

‘সংখ্যালঘুরা দেশ ছাড়ছে, মুসলমানদের জন্য লজ্জার বিষয়’

সংখ্যালঘু সম্প্রদায় দেশ ছেড়ে চলে যাচ্ছে, সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমানদের জন্যে এটা লজ্জার বিষয় বলে মন্তব্য করেছেন জাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. লায়েক সাজ্জাদ এন্দেল্লাহ।

নড়াইলে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি কর্তৃক আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

মানববন্ধনে জাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. লায়েক সাজ্জাদ এন্দেল্লাহ বলেন, কিছুদিন পর পর সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর আক্রমণ আসে। ১৯৭৫ সালের পর থেকে বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর লালন পালন শুরু হয়।

তিনি আরো বলেন, সংখ্যালঘু সম্প্রদায় দেশ ছেড়ে চলে যাচ্ছে। এটি অন্তত লজ্জার বিষয়। এটি সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমানদের জন্যেও লজ্জার বিষয়। সংখ্যালঘুদের প্রতিষ্ঠান দেখাশোনার দায়িত্বের কথা ইসলাম ধর্মেও বলা হয়েছে। আমাদের ধর্মকে যেভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে সেটি আমাদের ভাবমূর্তি বিদেশে নষ্ট করছে এবং ধর্মের ক্ষতি হচ্ছে।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি বলেন, আমরা যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী তাদের কারোর কথাই বিপথগামীদের কর্ণকুহরে প্রবেশ করছে না। সামনে যারা থাকে তারা ধর্মান্ধ। তাদেরকে পেছন থেকে কারা উষ্কে দেয় সেটা বের করতে হবে। বুদ্ধিজীবী সমাজ, সিভিল সোসাইটি এবং সরকারের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থাকে আরো বেশি তৎপর হতে হবে।

 নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ফাহমিদা আক্তার বলেন, বাঙালী জাতীয়তাবাদের তীব্র উন্মেষ হয়েছিল ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে। এই বোধের কারণে হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান, জাতি, ধর্ম, বর্ণ শ্রেণীভেদ থাকলেও আমরা সকলে একটি কাতারে সমবেত হয়ে একাত্তরের যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলাম।

তিনি আরো বলেন, একাত্তরের পরে একটি সেক্যুলার রাষ্ট্র নির্মিত হয়েছিল। যে রাষ্ট্রের মূলনীতি ছিলো গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, ধর্মনিরপেক্ষতা এবং একটি সামঞ্জস্য সমাজব্যবস্থা। এখন স্বাধীনতার ৫০ বছরে এসেও দেখছি সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে ছড়িয়ে পড়েছে। সে বাষ্প আমাদের চোখকে অন্ধ করে দিচ্ছে। বাঙালী জাতীয়তা-বোধের প্রেরণায় হিন্দু আমার ভাই, খ্রিস্টান আমার ভাই। আমরা সবাই মিলে একটি বাঙালী পরিবার। এই সাম্প্রদায়িক ঐক্যকে যারা ধ্বংস করে যারা তারাই এই দেশকে নিশ্চিহ্ন করতে চায়।

জাবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মোতাহার হোসেনের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকরা অংশ নেন।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //