১৬ ওভারে বাংলাদেশের টার্গেট ১৭০

প্রথম টি-টোয়েন্টিতে হারের পর আজ ঘুরে দাড়ানোর প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ। সিরিজে টিকে থাকতে এই ম্যাচে জয় পেতেই হবে মাহামুদুল্লাহদের। 

বৃষ্টির কারণে দুইবার খেলা বন্ধ হওয়ায় এখন জয়ের জন্য ১৬ ওভারে ১৭০ রান করতে হবে বাংলাদেশকে। 

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত প্রথম ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ ওভারে ১ উইকেটে ১৩।

রান বাজে বোলিং আর ফিল্ডিং মিসের খেসারত দিতে হচ্ছে গোটা সিরিজ জুড়ে। ওয়ানডে সিরিজের পরে সে ধারাবাহিকতা টি-টোয়েন্টি সিরিজেরো। আগের ম্যাচের মতো এ ম্যাচেও হাত গলিয়ে বের হয়ে গেছে একাধিক ক্যাচ। গ্রাউন্ডস ফিল্ডিংও যাচ্ছেতাই। এ সুযোগটা বেশ ভালোভাবে নিয়েছে নিউ জিল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা। দ্বিতীয় দফায় বৃষ্টি শুরুর আগে ১৭ ওভার ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭৩ রান সংগ্রহ করে কিউইরা। বৃষ্টি আইনে এখন বাংলাদেশের জয়ের জন্য ১৬ ওভারে দরকার ১৭০ রান।

এর আগে ইনিংসের চতুর্থ ওভারে প্রথমবারের মতো বোলিং পরিবর্তন করেন মাহমুদউল্লাহ। সাইফউদ্দিনের জায়গায় আনা হয় তাসকিন আহমেদকে। তার প্রথম বলেই ডিপ মিডউইকেট দিয়ে বিশাল ছক্কা মারেন অ্যালেন। ঘুরে দাঁড়াতে সময় নেননি তাসকিন। সুযোগ তৈরি করেন পরের বলেই।

অতি আক্রমণাত্মক খেলার চেষ্টায় মিড অফ ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন অ্যালেন। বলের নিচে গিয়েও সেটি তালুবন্দী করতে পারেননি মাহমুদউল্লাহ। সেই ওভারের চতুর্থ বলে লংঅন দিয়ে ইনিংসের দ্বিতীয় ছক্কা মারেন গাপটিল। তবু দমে যাননি তাসকিন, আপোস করেননি গতি ও বাউন্সের সঙ্গে।

এর ফলও পান হাতেনাতে। তার ওভারের শেষ বলটিতেও ছক্কার জন্য বড় শট নেন অ্যালেন। কিন্তু টাইমিংয়ের গড়বড়ে সেটি উঠে যায় আকাশে। স্কয়ার লেগ থেকে অধিনায়কের করা ভুলের পুনরাবৃত্তি ঘটতে দেননি নাঈম শেখ। তার নিরাপদ হাতে বিদায়ঘণ্টা বাজে ১০ বলে ১৭ রান করা অ্যালেনের।

পরের ওভারে নাসুমকেও আক্রমণ থেকে সরিয়ে নেন মাহমুদউল্লাহ, বল তুলে দেন আরেক তরুণ শরিফুল ইসলামের হাতে। দারুণ গতি ও বাউন্সের সঙ্গে দুর্দান্ত এক ওভার করেন শরিফুল। তবে কোনো বাউন্ডারি না পেলেও সেই ওভার থেকে ৭ রান তুলে নেয় নিউ জিল্যান্ড।

নিজের প্রথম ওভারে উইকেট পেলেও তাসকিনকে টানা দুই ওভার করাননি বাংলাদেশ অধিনায়ক। ষষ্ঠ ওভারে ফের আক্রমণে আনেন সাইফউদ্দিনকে। প্রথম পাঁচ বলে জোড়া চার হজম করে ১২ রান দিয়ে বসেন সাইফউদ্দিন। কিন্তু শেষ বলে তাসকিনের দুর্দান্ত ক্যাচে ওভারটি শেষ হয় ভালোভাবে।

সাইফউদ্দিনের পায়ের ওপর করা ডেলিভারিটি জোরের সঙ্গে খেলেছিলেন গাপটিল। ব্যাটের ভেতরের দিকে লেগে বল চলে যায় ফাইন লেগে। সেখান থেকে বাম দিকে ঝাঁপিয়ে এক হাতেই বলটি তালুবন্দী করেন তাসকিন, সাজঘরে ফিরতে হয় ১৮ বলে ২১ রান করা গাপটিলকে।

প্রথম পাওয়ার প্লে'তে দুই উইকেট নেয়া বাংলাদেশ, স্বাগতিকদের ওপর আরও চাপ বাড়ায় ঠিক পরের বলেই। শরিফুলের করা ইনিংসের সপ্তম ওভারের প্রথম বলে অনসাইডে বড় শটের চেষ্টা করেন আগের ম্যাচের নায়ক ডেভন কনওয়ে। কিন্তু টপ এজ হয়ে বল চলে যায় সোজা স্কয়ার লেগে থাকা মিঠুনের হাতে। এ ম্যাচে ১৫ রানের বেশি করা হয়নি কনওয়ের।

বারোতম ওভারে মেহেদির চর্তুথ বলে উইল ইয়াংকে সহজ স্টাম্পিংয়ে সাজ ঘরে ফেরান  লিটন দাশ।

টস জিতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ সময় আজ মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) দুপুর ১২টায় নেপিয়ারের ম্যাকলিন পার্কে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি শুরু হয়। 

একাদশে এক পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে মোস্তাফিজুর রহমান থাকলেও নেই এই ম্যাচে। তার পরিবর্তে জায়গা পেয়েছেন তাসকিন আহমেদ। 

অপরদিকে এক পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নেমেছে নিউ জিল্যান্ড। লকি ফার্গুসনের পরিবর্তে একাদশে জায়গা পেয়েছেন অ্যাডাম মিলনে। 

এর আগে প্রথম টি২০ ম্যাচে ৬৬ রানের বিশাল ব্যবধানে হেরেছে সফরকারীরা।

এরও আগে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ধবলধোলাই হয় বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ একাদশ : লিটন দাস, মোহাম্মদ নাঈম, সৌম্য সরকার, মোহাম্মাদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, মোহাম্মাদ সাঈফউদ্দিন, মেহেদী হাসান, নাসুম আহমেদ, শরিফুল ইসলাম ও তাসকিন আহমেদ।

নিউ জিল্যান্ড একাদশ : টিম সাউদি (অধিনায়ক), ডেভন কনওয়ে (উইকেটরক্ষক), অ্যাডাম মিলনে, মার্টিন গাপটিল, ফিন অ্যালেন, হ্যামিশ বেনেট, মার্ক চ্যাপম্যান, ড্যারেল মিচেল, গ্লেন ফিলিপস, ইশ সোধি ও উইল ইয়ং। 

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh