দ্বিতীয় দিন শেষে চালকের আসনে বাংলাদেশ

২ উইকেট হারিয়ে ৩০২ রানে ক্যান্ডি টেস্টের প্রথম দিনের খেলা শেষ করেছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনটা ভালোই শুরু করেছিল মুমিনুল হক আর নাজমুল হোসেন শান্ত। তবে দ্বিতীয় সেশনে এসে দুই সেঞ্চুরিয়ানকেই হারিয়েছে বাংলাদেশ। নাজমুল হোসেন শান্তর বিশাল এক সেঞ্চুরির সঙ্গে অধিনায়ক মুমিনুলের বিদেশের মাটিতে প্রথম সেঞ্চুরির ওপর ভর করে দ্বিতীয় দিনের তৃতীয় সেশন শুরুর খানিক পরই বাংলাদেশের স্কোর দাঁড়িয়েছে ৪৭৪ রানে।

ব্যাড লাইটের কারণে স্থানীয় সময় বিকাল ৪টায় খেলা বন্ধ হয়ে যায়। এরপর ১৫ মিনিট পার হওয়ার পরও বোঝা যাচ্ছিল না খেলা শুরু হবে কী হবে না

২৫ ওভার বাকি থাকতেই দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ হয়। বাংলাদেশের রান এ সময় ১৫৫ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৪৭৪ রান। ৪৩ রান নিয়ে মুশফিকুর রহীম এবং ২৫ রান নিয়ে ব্যাট করছিলেন লিটন দাস।

এর আগে শান্ত-মুশফিকের রেকর্ডগড়া তৃতীয় উইকেট জুটিটা ভেঙেছে ২৪২ রানে। লাহিরু কুমারাকে আলতো করে খেলতে গিয়ে ফিরতি ক্যাচ দিয়েছেন ডাবল সেঞ্চুরির আশা জাগানো শান্ত।

৩৭৮ বল মোকাবেলায় গড়া শান্তর ক্যারিয়ারসেরা ১৬৩ রানের ইনিংসটি ছিল ১৭ বাউন্ডারি আর ১ ছক্কায় সাজানো। এরপর উইকেটে আসেন মুশফিকুর রহীম। কিন্তু মুমিনু্লের সঙ্গে তার জুটিটা জমেনি।

চতুর্থ উইকেটে ৩০ রান যোগ হতেই সাজঘরের পথ ধরেছেন মুমিনুল। ধনঞ্জয়া ডি সিলভার আলগা ডেলিভারিটি শরীরের বাইরে থেকেই খেলতে চেয়েছিলেন টাইগার অধিনায়ক, বল ব্যাটে লেগে যায় চলে যায় প্রথম স্লিপে।

১২৭ রানে থামে মুমিনুলের ক্যারিয়ারের ১১তম এবং বিদেশের মাটিতে প্রথম সেঞ্চুরি ইনিংসটি। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান এই ইনিংসে ৩০৪ বল মোকাবেলা করেছেন, বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন ১১টি।

এরপর মুশফিকুর রহীমের সঙ্গে জুটি গড়ার চেষ্টায় আছেন লিটন দাস। দেখেশুনেই খেলছেন তারা। ৫.১ ওভারের জুটিতে অবিচ্ছিন্ন ১৬ রানে। ৪ উইকেটে ৪৪০ রান নিয়ে চা-বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।

বিরতির পর খেলা শুরু হতেই বৃষ্টির কবলে পড়ে। প্রথম দফায় খেলা বন্ধ হওয়ার পর আবার শুরু হয়। তবে বেশিক্ষণ চলেনি খেলা স্বল্প আলোতে ২৫ ওভার বাকি থাকতে খেলা শেষ হয়। 

এর আগে টেস্টের প্রথম দিন ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরির দেখা পান নাজমুল হোসেন শান্ত। দ্বিতীয় দিন এসে তিনি আউট হন ১৬৩ রান করে। ক্যারিয়ারের ৮ম বছরে এসে বিদেশের মাটিতে প্রথম সেঞ্চুরির দেখা পাওয়া অধিনায়ক মুমিনুল হক আজ আউট হন ১২৭ রানে। এর আগে প্রথম দিন ৯০ রান করে আউট হন তামিম ইকবাল। সাইফ হাসান আউট হয়েছিলেন শূন্য রানে।


মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh