তাসিকন-তাইজুলের আঘাতে স্বস্তিতে বাংলাদেশ

তাসকিন আহমেদের আগুনে বোলিংয়েই পাল্লেকেলেতে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিন প্রথম সেশনটি নিজেদের করে নিয়েছে বাংলাদেশ। দুর্দান্ত বোলিংয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন তাসকিন। তাকে সঙ্গ দিয়ে উইকেটের খাতায় নাম তুলেছেন তাইজুল ইসলামও।

আগেরদিন করা ১ উইকেটে ২৯১ রানের সঙ্গে আজকের প্রথম সেশনে ২৬ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ৪৩ রানের বেশি করতে পারেনি লঙ্কানরা। দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশন শেষে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ১১৬ ওভারে ৪ উইকেটে ৩৩৪ রান।


চলতি টেস্টের প্রথমদিন একমাত্র উইকেট পেয়েছিলেন অভিষিক্ত শরিফুল ইসলাম। তবে সবমিলিয়ে বাংলাদেশ দলের সেরা বোলার ছিলেন তাসকিন। কিন্তু উইকেটের দেখা পাননি তিনি। তবে দ্বিতীয় দিন সকালে তার হাত ধরেই প্রথম ব্রেকথ্রু পায় বাংলাদেশ।

আগের দিনের মতো আজও (শুক্রবার) লম্বাসময় ধরে খেলার পণ নিয়েই ব্যাটিংয়ে নেমেছিলেন দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান ওশাদা ফার্নান্দো এবং লাহিরু থিরিমান্নে। তবে তাদের সহজে রান তোলার সুযোগ দেননি বাংলাদেশ দলের পেসাররা।

যার ফলস্বরুপ দিনের ১৫তম ওভারে গিয়ে মিলেছে প্রথম সাফল্য। তাসকিন, শরিফুল, আবু জায়েদ রাহিদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে প্রথম ১৪ ওভারে ২২ রানের বেশি করতে পারেনি শ্রীলঙ্কা। দিনের ১৫তম ওভারে বোলিংয়ে আসেন তাসকিন। প্রথম বলেই ফিরিয়ে দেন সেঞ্চুরিয়ান লাহিরু থিরিমান্নেকে।

তাসকিনের শর্ট লেন্থে করা ডেলিভারিটি ছিল মিডল-লেগ স্ট্যাম্প বরাবর। কিন্তু আগেই অফস্ট্যাম্পের দিকে সরে গিয়েছিলেন থিরিমান্নে। ফলে অনসাইডে খেলার চেষ্টা করেন তিনি। কিন্তু ব্যাটে-বলে হয়নি। তার ব্যাটের কানায় লেগে বল জমা পড়ে উইকেটরক্ষক লিটন দাসের গ্লাভসে।

দলীয় ৩১৩ রানের মাথায় আউট হওয়ার আগে ক্যারিয়ারের তৃতীয় সেঞ্চুরিতে ১৫ চারের মারে ২৯৮ বলে ১৪০ রানের ইনিংস খেলেন থিরিমান্নে। তার বিদায়ে ভাঙে ওশাদা ফার্নান্দোর সঙ্গে ১০৪ রানের দ্বিতীয় উইকেট জুটি। সাবলীল ব্যাটিং করতে থাকা ওশাদা তুলে নিয়েছেন ফিফটি।

থিরিমান্নে আউট হওয়ার পর একই ওভারের চতুর্থ বলে সাজঘরে ফিরতে পারতেন শ্রীলঙ্কার অভিজ্ঞতম ব্যাটসম্যান অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ। তার ব্যাটের বাইরের কানায় লেগে বল চলে যায় লিটনের গ্লাভসে। কিন্তু ফিল্ডারদের কেউই আবেদন করেননি। ফলে বেঁচে যান ম্যাথুজ।


অবশ্য এ জীবনটি কাজে লাগাতে পারেননি লঙ্কানদের অভিজ্ঞতম ব্যাটসম্যান। তাসকিনের করা ১০৯তম ওভারের প্রথম বলে ধরা পড়েন উইকেটের পেছনে। অফস্ট্যাম্পের বাইরের বলটি চেক শট খেলতে গিয়ে ব্যাটের বাইরের কানায় লাগে ম্যাথুজের, ডানদিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে উইকেট নিশ্চিত করেন লিটন দাস।

তাসকিনের জোড়া উইকেটের পর প্রয়োজন ছিল অপরপ্রান্ত থেকে যোগ্য সঙ্গ। দুই ওভার পর সেই কাজটিই করে বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম। তার শার্প টার্ন ও বাউন্সি ডেলিভারিতে কুপোকাত হন প্রথম ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান ধনঞ্জয় ডি সিলভা। স্লিপে ক্যাচ ধরে ২ রান করা ধনঞ্জয়কে ফেরান নাজমুল হোসেন শান্ত।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh