বিমানের ১০ কর্মকর্তার দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

ফাইল ছবি।

ফাইল ছবি।

১১৮ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে বিমানের সেলস মার্কেটিং বিভাগের পরিচালক আশরাফুল আলম, কার্গোর জিএম আরিফ উল্লাহসহ ১০ জনের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। 

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর আদালতের সিনিয়র স্পেশাল জজ ওই আদেশ দেন।

আশরাফুল, আরিফ ছাড়া অন্য যাদের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে তারা হলেন- বিমানের কার্গো শাখার সাবেক মহাব্যবস্থাপক আলী আহসান, ভারপ্রাপ্ত মহাব্যবস্থাপক আরিফ উল্লাহ, সাবেক মহাব্যবস্থাপক (বিক্রয়) শামসুল করিম, জেলা ব্যবস্থাপক নীলফামারীর মুহাম্মদ আসলাম পারভেজ, কমার্শিয়াল সুপারভাইজার প্রমিতোষ তালুকদার, কমার্শিয়াল অফিসার রিয়াদ সোলেমান, কমার্শিয়াল সুপারভাইজার কক্সবাজার জিয়া উদ্দীন খান ঠাকুর, পরিচালক সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং আশরাফুল আলম, যুক্তরাজ্যের সাবেক কান্ট্রি ম্যানেজার শফিকুল ইসলাম ও সিলেটের জেলা ব্যবস্থাপক এনায়েত হোসেন।

এর আগে ২০১৯ সালের ৩ ডিসেম্বর বিমানের এই ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদকের উপপরিচালক আতাউর রহমান। ২০২০ সালের ১৯ জানুয়ারি এই মামলায় বাংলাদেশ বিমানের সাবেক ও বর্তমান ১০ কর্মকর্তা জামিন পান। এদিকে গত ২২ জুন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আবদুল মুনীম মোসাদ্দিক আহম্মেদের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়। প্রাপ্ত অভিযোগের ভিত্তিতে অনুসন্ধানে প্রমাণ পাওয়ায় তাদের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে নিম্ন আদালত তাদের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দেয়ার অনুমতি দেয়।

চলতি বছরের ২ মে বিমানের অন্য ১০ জনের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক বরাবর চিঠি পাঠায় দুদক। এসবির বিশেষ পুলিশ সুপার (ইমিগ্রেশন) এবং শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ওসি (ইমিগ্রেশন) বরাবর চিঠির অনুলিপি পাঠানো হয়। মোসাদ্দিক আহম্মেদ ছাড়াও জুনিয়র গ্রাউন্ড সার্ভিস অফিসার-বিমান শ্রমিক লীগের সভাপতি ও বিমানের সিবিএ নেতা মশিকুর রহমান, গ্রাউন্ড সার্ভিস সুপারভাইজার জি এম জাকির হোসেন, মিজানুর রহমান ও এ কে এম মাসুম বিল্লাহ, কমার্শিয়াল সুপারভাইজার রফিকুল আলম ও গোলাম কায়সার আহমেদ, জুনিয়র কমার্শিয়াল অফিসার মারুফ মেহেদী হাসান এবং কমার্শিয়াল অফিসার জাওয়েদ তারিক খান ও মাহফুজুল করিম সিদ্দিকীর উপরও নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়। হাইকোর্টের সাম্প্রতিক এক নির্দেশনার কারণে দেশত্যাগে বা বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞার জন্য বিচারিক আদালতের অনুমতি নিতে হচ্ছে দুদককে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh