পরীমণির গোপন কথা ফাঁস করলেন জয়নাল হাজারী

জয়নাল হাজারী ও পরীমণি। ফাইল ছবি

জয়নাল হাজারী ও পরীমণি। ফাইল ছবি

পরীমণিই সম্ভবত দেশে প্রথম নায়িকা যাকে নিয়ে সর্বমহলে এতো বিতর্ক। বোট ক্লাবের ঘটনা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে তিনি। সংসদ থেকে চায়ের দোকান কিংবা সোশ্যাল মিডিয়া সবখানেই পরী আর পরী।

গেলো ১০ জুন রাতে ঢাকা বোট ক্লাবে তাকে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টা করা হয়েছিল। এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে প্রধান আসামি নাসির ইউ আহমেদসহ ছয়জনকে গ্রেফতারও করে পুলিশ। পরে অবশ্য জামিন পেয়েছেন নাসির।

তবে সেদিন রাতের ঘটনায় পরীমণিকেই দুষলেন ফেনী-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য জয়নাল হাজারী। এই নেতার ভাষ্য, মধ্যরাতে বোট ক্লাবে গিয়েই ভুল করেছেন পরী। তিনি না গেলে এমনটা ঘটতো না।

সম্প্রতি ফেসবুক লাইভে এসে পরীমণি সম্পর্কে বিস্ফোরক সব তথ্যও জানালেন জয়নাল হাজারী। তার ভাষ্য, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সহ-সভাপতি এনামুল হক আরমানের সঙ্গে সিঙ্গাপুর গিয়েছিলেন পরীমণি।

জয়নাল হাজারী বলেন, ‘সম্রাটের এক সঙ্গী আরমান পরীমণিকে নিয়ে সিঙ্গাপুর যান। আমরা একই ফ্লাইটে গেলাম এবং আসার সময়ও একই ফ্লাইটে এলাম। এই আরমানের কোনো ছবি মুক্তি পেয়েছে বলে আমি জানি না। ফেনীতেও সে পরীমণিকে নিয়ে গিয়েছিল।’

বোট ক্লাবের ঘটনা নিয়ে জয়নাল হাজারী বলেন, ‘একটা কথাতেই সবশেষ হয় যে, এই মেয়ে (পরীমণি) বোট ক্লাবে গিয়েই অপরাধ করেছে। মেয়েটা যদি না যেত, এ ঘটনা হতো না। তাকে যদি ধর্ষণ করা হয় বা নির্যাতন করা হয়, তা তো তার দোষেই হয়েছে। সে তো জানে ওই ক্লাবে কী হয়। মদ খাওয়া হয়, জুয়া খেলা হয়। আমি যদি জেনে শুনে বাঘের মুখে পড়ি, বাঘ তো আমাকে খাবেই। সাপের গায়ের ওপর পা দিলে তো কামড়াবেই। এটা তো জানা কথাই; তাহলে সে কেন গেলো। মূলত এটার জন্য আমি তাকে অপরাধী মনে করি।’

এছাড়া ওই ঘটনায় একটি প্রশ্নও তুলেছেন জয়নাল হাজারী। তিনি বলেন, ‘পরীমণি বোট ক্লাবের ঘটনার পর থানায় গিয়েছিলেন মামলা করতে। তবে পরীমণি অসংলগ্ন, মাতাল ছিলেন বলে সেই মামলা নেননি থানার ওসি সাহেব। আমার প্রশ্ন হচ্ছে, সে যদি মাতাল হয়, তাকে সঙ্গে সঙ্গে গ্রেফতার করে হাসপাতালে নিয়ে ওয়াশ করার নিয়ম। কিন্তু তখন তা কেন করা হলো না।’

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh