শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু

দ্বিতীয় দফায় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণার দুই দিন পর শিমুলিয়া-কাঠাঁলবাড়ী নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে। তবে ২৮ কিলোমিটার পথ ঘুরে পালেরচর চ্যানেল দিয়ে ফেরি চলাচল করতে হবে। এতে একদিকে জ্বালানি খরচ বৃদ্ধি পাবে অন্যদিকে গন্তব্যে যেতে ৪ গুণ বেশি সময় লাগবে বলে জানিয়েছে ফেরি চালকরা।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার পর নৌ মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে ফেরি চলাচল শুরু করে বিআইডব্লিউটিসি।

এদিকে ফেরি চালুর আগে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নৌ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী, অতিরিক্ত সচিব অনল চন্দ্র রায় ও বিআইডাব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান গোলাম সাদেক ও বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান খাজা মিয়া ও ড্রেজিং বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী আব্দুল মতিনসহ অন্য কর্মকর্তারা দুই ঘন্টাব্যাপী সময় নিয়ে শিমুলিয়া-কাঠাঁলবাড়ী নৌরুটের যেসব পয়েন্টে ড্রেজিং করা হচ্ছে, সেই স্থানগুলো পরিদর্শন করেন।

নাব্যতা সংকটের কারণে টানা আট দিন বন্ধ থাকার পর গত শুক্রবার বিকেল ৫টার পর থেকে কয়েক ঘণ্টা ফেরি চলাচল করলেও সন্ধ্যায় আবারও বন্ধ হয়ে যায়। এরপর সীমিত পরিসরে শনিবার আবারও ফেরি চলাচল শুরু করলে নাব্যতা সংকটের কারণে সমস্যা হচ্ছিল। বিষয়টি জানতে পেরে সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জরুরি সভায় রবিবার রাত সাড়ে ৮টার পর থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ফেরি চলাচল বন্ধ করার ঘোষণা দেয় বিআইডব্লিউটিসি। আর দ্বিতীয় দফায় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণার দুই দিন পর মঙ্গলবার দুপুর থেকে শিমুলিয়া-কাঠাঁলবাড়ী নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে।

নৌ চ্যানেলে ড্রেজিং কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে নৌ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ২৮ কিলোমিটার পথ ঘুরে পালেরচর চ্যানেল দিয়ে আপাতত ফেরি চলাচল করবে। লৌহজং টার্নিং চ্যানেল দ্রুত সময়ের মধ্যে সচল করতে আপ্রাণ চেষ্টা চলছে। এছাড়া বিকল্প পথ হাজরা চ্যানেল চালু করারও পরিকল্পনা এখন বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। তবে বিকল্প চ্যানেলটি চালু করতে একটু সময় লাগবে বলে জানান নৌ সচিব।

শিমুলিয়া ঘাট সংশ্লিষ্টরা জানান, মঙ্গলবার নৌ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরীর নির্দেশনা পেয়ে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শিমুলিয়া ঘাট থেকে ক্যামেলিয়া নামের একটি কে-টাইপ ফেরি পালের চরের চ্যানেল দিয়ে কাঁঠালবাড়ীর উদ্দেশে রওনা হয়েছে। ২৮ কিলোমিটার পথ ঘুরে ফেরিটির গন্তব্যে পৌঁছতে ৫ থেকে ৬ ঘন্টা সময় লাগবে। আর ফেরি ক্যামেলিয়া গন্তব্যে পৌঁছতে পারলে ছোট ও মাঝারি আকারের ফেরি চলাচল শুরু করবে বিআইব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh