চাঁদাবাজিতে হাত পাকাচ্ছে রোহিঙ্গারা

কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার কুতুপালং ক্যাম্পে সিএনজিচালিত অটোরিকশা আটকিয়ে সশস্ত্র রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা চাঁদা দাবি করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৩টার দিকে কুতুপালং ক্যাম্পের সশস্ত্র রোহিঙ্গারা স্থানীয় এক বাড়িতে হামলা চালায়। এ নিয়ে এলাকায় স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

কুতুপালং গ্রামের ভুক্তভোগী জাফর আলম অভিযোগ করেন, দুপুর ১২টার দিকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মুচড়ারটেক নামক স্থানে যাত্রীবাহী সিএনজিচালিত অটোরিকশা থামান তিনি। পরে পার্শ্ববর্তী দোকানে গেলে গাড়িটি কে বা কারা ছিনতাই করে নিয়ে যায়। খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন ক্যাম্পের নুরুল ইসলামের ছেলে মো. ইউসুফ ও তার ছেলে ফয়সাল গাড়িটি অজ্ঞাত স্থানে লুকিয়ে রেখেছেন।

তিনি আরো জানান, গাড়িটি ফেরত চাইলে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা চার লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে তর্কাতর্কি ও হাতাহাতির জের ধরে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এসময় সন্ত্রাসী মাস্টার মুন্না, ইউসুফ ও ফয়সালের নেতৃত্বে ৫০/৬০ জনের সংঘবদ্ধ সশস্ত্র রোহিঙ্গা জাফর আলমের বাড়িতে হামলা চালায়। পরে রোহিঙ্গারা সড়কে চলাচলরত ছয়টি সিএনজি ও কচুবনিয়া সিএনজি শ্রমিকদের অফিস ভাঙচুর করে।

উখিয়ার শাহপরীর দ্বীপ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মতিউর রহমান জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh