কক্সবাজার সৈকতে তরুণী ধর্ষণ, যুবক আটক

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে ‘প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে এসে’ এক যুবতী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী তরুণী বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে।

বুধবার রাত সাড়ে ১২ টায় কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের লাবণী পয়েন্ট সংলগ্ন বিজিবির উর্মি রেস্তোরার পাশে নির্জন স্থানে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানান কক্সবাজার সদর থানার ওসি শেখ মুনীর-উল গীয়াস।

ধর্ষণের শিকার তরুণীর আনুমানিক বয়স ১৮ থেকে বছর। তার বাড়ি চকরিয়া উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের হাঁসের দিঘী এলাকায়।

ঘটনায় গ্রেফতারকৃত ওসমান সরওয়ার (২৬) কক্সবাজার শহরের কলাতলী সংলগ্ন আদর্শগ্রাম এলাকার আবুল বশরের ছেলে। সে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের লাবণী পয়েন্ট এলাকায় পর্যটক ছাতা (কিটকট) পরিচালনাকারি।

অভিযোগের বরাতে ওসি মুনীর-উল গীয়াস বলেন, ভুক্তভোগী তরুণীর সঙ্গে মোবাইল ফোনে জনৈক ব্যক্তির পরিচয় ঘটে। এ পূর্ব পরিচয়ের সূত্র ধরে বুধবার বিকালে চকরিয়া থেকে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এলাকায় প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে আসে ওই তরুণী।

তিনি বলেন, ভুক্তভোগী তরুণী কক্সবাজার সৈকতে পৌঁছার পর থেকে প্রেমিকের মোবাইল ফোন বন্ধ পায়। পরে দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষার পর রাত ঘনিয়ে এলে সৈকতের লাবণী পয়েন্ট এলাকায় পর্যটক ছাতা (কিটকট) ভাড়া নেয়।

ভুক্তভোগী তরুণীর বরাতে ওসি বলেন, রাতের এক পর্যায়ে ওই তরুণীকে নিরাপদ স্থানে পৌঁছে দেয়ার কথা জানায় ওই যুবক। পরে গ্রেফতারকৃত যুবক বিজিবির উর্মি রেস্তোরা পাশে নির্জন স্থানে নিয়ে গিয়ে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে ভুক্তভোগী তরুণী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে বলে জানান মুনীর-উল গীয়াস।

ওসি বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর বৃহস্পতিবার দুপুরে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের লাবণী পয়েন্ট থেকে অভিযুক্ত ওসমান সরওয়ারকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মুনীর-উল গীয়াস জানান, এ ঘটনায় অভিযুক্ত যুবককে আসামি করে মামলা দায়ের হয়েছে। ভুক্তভোগী তরুণীকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh