এসপিপত্নী হত্যার আসামি ভোলা চাঁদাবাজিতে গিয়ে গ্রেফতার

সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা আক্তার মিতু হত্যা মামলায় সাড়ে তিন বছর জেল খেটে জামিনে মুক্ত হয়েছিলেন আলোচিত আসামি এহতেশামুল হক ভোলা। ১০ মাস আগে জামিনে মুক্ত হয়ে এবার চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) নগরীর বাকলিয়া থানা এলাকা থেকে ভোলাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে নগর পুলিশের চকবাজার জোনের সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ রাইসুল ইসলাম।

তার বাড়ি বাকলিয়া থানার রাজাখালী এলাকায়। তার বিরুদ্ধে মাদক, অস্ত্র, খুন ও চাঁদাবাজির অভিযোগে কমপক্ষে ১৮টি মামলা আছে বলে জানিয়েছেন সহকারী পুলিশ কমিশনার রাইসুল।

বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন জানান, ভোলা ২০১৯ সালের ২৯ ডিসেম্বর কারাগার থেকে জামিনে ছাড়া পান। এরপর থেকেই রাজাখালী এলাকার বাসিন্দা কলোনি মালিক এমদাদুল আলমের কাছ থেকে ৫০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিলেন। গতকাল (বুধবার) সন্ধ্যায় ভোলা তার সহযোগী আনিসুল হক ও সেলিম আহমেদকে নিয়ে এমদাদুলের কলোনিতে যান। আবারও ৫০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করলে এমদাদুল অপারগতা প্রকাশ করেন। এসময় ভোলা তাকে গালিগালাজ করতে থাকলে এবং মারধরে উদ্যত হলে দারোয়ান শরীফুল হক ও ভাড়াটিয়া মোরশেদুল ও শহীদুল বাধা দেন। তখন ভোলা ও তার সহযোগীরা তাদের মারধর করে। একপর্যায়ে ভোলা ছুরি বের করে এমদাদুলকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এমদাদুল থানায় এসে মামলা দায়েরের পর ভোলাকে গ্রেফতার করা হয়।

বৃহস্পতিবার বিকেলে তাকে আদালতে হাজির করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি।

২০১৬ সালের ৫ জুন সকালে নগরীর পাঁচলাইশ থানার ও আর নিজাম রোডে ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার পথে বাসার অদূরে গুলি ও ছুরিকাঘাত করে খুন করা হয় মিতুকে। এই ঘটনায় তৎকালীন এসপি বাবুল আক্তার বাদী হয়ে নগরীর পাঁচলাইশ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই বছরের ২৮ জুন এহতেশামুল হক ভোলা ও তার সহযোগী মো. মনিরকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে পয়েন্ট ৩২ বোরের একটি পিস্তল উদ্ধার করা হয়, যেটি মিতু হত্যায় ব্যবহৃত হয়েছে বলে দাবি করেছিল পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ভোলা ও মনিরকে আসামি করে একটি অস্ত্র মামলা দায়ের করে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh