নারায়ণগঞ্জে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

নারায়ণগঞ্জে ছোট ভাইয়ের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে (১৪) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে বড় ভাই ও বন্ধুর বিরুদ্ধে। এই অভিযোগে পুলিশ মাদ্রাসা ছাত্রীর মায়ের করা মামলায় সেই দুই ভাইসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) রাতে আড়াইহাজারের ব্রাহ্মন্দী এলাকা থেকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- আড়াইহাজার উপজেলার ব্রাহ্মন্দী এলাকার মোতালিবের দুই ছেলে নজরুল (২৫) ও বাদল (৩৭) এবং একই এলাকার মধ্যপাড়ার আবুল হোসেনের ছেলে মুছা (২৪)।

মামলার সূত্রে জানা গেছে, সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার কিশোরী আড়াইহাজার উপজেলার ডহর মারুয়াদী এলাকার স্থানীয় একটি মহিলা মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী। কিশোরীর সাথে নিজের নাম-পরিচয় গোপন করে সাগর নামে মোবাইলে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে অভিযুক্ত নজরুল। গত ১২ অক্টোবর সকালে ওই কিশোরী মাদ্রাসা থেকে বাসায় এলে সন্ধ্যা ৭টায় পরীক্ষার ফি দিয়ে মাদ্রাসায় পাঠিয়ে দেয় তার মা। আধা ঘণ্টা পর কিশোরীর মা মাদ্রাসায় গিয়ে জানতে পারেন তার মেয়ে মাদ্রাসায় যায়নি। বাসা থেকে বেরিয়ে কিশোরী অভিযুক্ত নজরুলের সাথে দেখা করলে তার পরিচয় প্রকাশ পায়। প্রতারণা করে নিজের পরিচয় গোপন করায় কিশোরী চলে আসার চেষ্টা করলে নজরুল বাধা দেয় এবং ধর্ষণের চেষ্টা করে। পরে নজরুলের বড় ভাই বাদল ও মুছা কিশোরীকে দেখতে পেয়ে কিশোরীকে বাড়িতে পৌঁছে দিবে বলে নজরুলকে তাড়িয়ে দেয়। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে ব্রাহ্মন্দী এলাকার রবীন্দ্র বাবুর পুকুর পাড়ের একটি জঙ্গলে নিয়ে পালাক্রমে বাদল ও মুছা ধর্ষণ করে কিশোরীকে।

আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh