‘বড় শিতির মধ্যি কম্বল প্যায়ে কি যে খুশি হইছি’

ছবি: নড়াইল প্রতিনিধি

ছবি: নড়াইল প্রতিনিধি

নড়াইলে কনকনে শীতে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে ‘স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশন’। 

আজ রবিবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে সদরের ভদ্রবিলা ইউনিয়নের দিঘলিয়া বাসস্টান্ড এলাকায় শীতার্ত ২০০ মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করে স্বেচ্ছাসেবী  সংগঠনটি।  

কম্বল পেয়ে বয়স্ক কয়েকজন নারী ও পুরুষ বলেন, ‘শিতির মধ্যি ম্যালা কষ্ট পাচ্ছিলাম। গরম কাপড়-চোপড় ছিল না। কোনো মতে জোড়াতালি দিয়ে চলছিলাম। বড় শিতির মধ্যি কম্বল প্যায়ে কি যে খুশি হইছি, তা এ্যাতো সহজে বুঝাতি পারব না। আল্লাহ তাগে য্যানো আরো দেয়ার সার্মথ্য দেয়।’

অষ্ট্রিয়া প্রবাসী সোহেল মুস্তারীর সহযোগিতায় কম্বল বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন- স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা মো. ফয়সাল মুস্তারী, প্রতিষ্ঠাতা মির্জা গালিব সতেজ, বাসগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক এম এম হেলাল উদ্দিন, জিয়াউর রহমান ইমন, শামীম হোসেন, সোহাগ ফারাজী, শাহরিয়ার রোহান রাজ, হাসিবুর রহমান, এস এম শাহ পরাণসহ সংগঠনের সদস্যরা।

এর আগে শীত মওসুমের শুরুতে গত ৫ ডিসেম্বর শহরের পুরাতন বাস টার্মিনাল চত্বরসহ আউড়িয়া ইউনিয়নের সীমাখালী এলাকায় এতিম শিশু, বেদেপল্লী ও মানসিক ভারসাম্যহীনদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করে স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশন।

ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা মির্জা গালিব সতেজ বলেন, করোনাভাইরাসের শুরু থেকেই আমরা অসহায় মানুষের পাশে ছিলাম। এখন শীতবস্ত্র বিতরণ করছি। আমাদের এ প্রচেষ্টা শীত মওসুম জুড়ে অব্যাহত থাকবে। অসহায় মানুষের শীত নিবরণের চেষ্টা করব আমরা।

পড়ালেখার পাশাপাশি ২০১৭ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের ব্যানারে অসহায় মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন কয়েকজন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী। এর প্রতিষ্ঠাতা ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার স্যায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিয়ারিং বিষয়ের শিক্ষার্থী মির্জা গালিব সতেজ।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh