চিংড়ি পোনার হাট নিয়ে ব্যবসায়ীদের ক্ষোভ

মৌসুমের শুরুতেই জমে উঠেছে দেশের বৃহত্তম চিংড়ি পোনার বাজার বাগেরহাটের ফয়লাহাট। কাকডাকা ভোর থেকে বিকেল পর্যন্ত পোনা কেনার জন্য ভিড় করছেন চিংড়ি চাষিরা। কক্সবাজার, নোয়াখালী, ফেনী ও চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের হ্যাচারি থেকে আসা পোনা বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা। 

খুলনা-মোংলা মহাসড়কের বাগেরহাট জেলার রামপাল উপজেলার ফয়লা নামক স্থানে অবস্থিত দেশের বৃহত্তম এই চিংড়ি পোনার হাট। এই হাটে ২ শতাধিক পোনার আড়ত (দোকান) রয়েছে। পোনা গণনা, পরিবহনসহ নানা কাজের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন আরও সহস্রাধিক মানুষ। যাতায়াত ব্যবস্থা সুবিধাজনক হওয়ায় প্রতিদিন বাগেরহাটসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে চিংড়ি চাষিরা ছুটে আসেন এই চিংড়ি পোনার আড়তে। এখান থেকে পোনা কিনে নিয়ে চলে যান মৎস্য ঘেরে। 

তবে সম্ভাবনাময় এই হাটের নানা সংকটের কথা জানিয়েছেন ব্যবসায়ী সমিতির নেতারা। দিনে ৫শ থেকে হাজার টাকা পর্যন্ত আয় করেন তারা। তবে হাটকে কেন্দ্র করে এই এলাকায় যে বাণিজ্যিক সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে, তা ধরে রাখার জন্য হাটের অবকাঠামোর উন্নয়নসহ প্রশাসনের হয়রানি বন্ধের দাবি করেছেন ব্যবসায়ীরা। 

ব্যবসায়ী মো. তরিকুল ইসলাম বলেন, প্রায় তিন বছর ধরে গোবিন্দপুরের পথে ফয়লা হাটে প্রবেশের সেতুটি নির্মাণ কাজ চলছে। যার ফলে বাইপাস সড়ক দিয়ে আসতে ক্রেতাদের খুব কষ্ট হয়। দ্রুত সময়ের মধ্যে সেতু নির্মাণ কাজ শেষসহ বাজারের নানা অবকাঠামো উন্নয়নের দাবি জানান তিনি।

 মাছ কিনতে আসা ঘের ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান বলেন, আমাদের আগ্রহ থাকে নদীর পোনার ওপর। কিন্তু বিভিন্ন কারণে নদীর পোনার সংকট থাকায় আমরা বাধ্য হয়ে হ্যাচারির পোনা ক্রয় করি। 

ফয়লাহাট বাজার মৎস্য সমিতির সভাপতি গাজী রাশেদুল ইসলাম ডালিম বলেন, পোনা পরিবহন, পোনা গোনাসহ বিভিন্ন কাজের সঙ্গে সহস্রাধিক মানুষ যুক্ত রয়েছে। এই হাট থেকে প্রতি বছর সাড়ে তিনশ’ কোটির ওপরে পোনা বিক্রি হয়; কিন্তু অনেক সময় প্রশাসনের লোকজন হাটের ক্রেতা ও ব্যবসায়ীদের অহেতুক হয়রানি করে থাকে যা মোটেই কাম্য নয়। হয়রানি বন্ধে মৎস্য বিভাগ ও বাগেরহাট জেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ দাবি করেন এই মৎস্য নেতা।

বাগেরহাট জেলা মৎস্য কর্মকর্তা এসএম রাসেল বলেন, কোনোভাবে এই হাট ও হাটের ওপর নির্ভর করা চাষিদের ক্ষতি হয় এমন কিছু করা যাবে না। এ বিষয়ে একটি সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দেন তিনি।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh