উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা টেস্ট বন্ধের অভিযোগ

জনবল সংকটের অজুহাত দেখিয়ে কোনো ধরনের ঘোষণা ছাড়াই হঠাৎ করে করোনা টেস্ট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বিরুদ্ধে । এতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের ওপর অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, দোয়ারাবাজার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করলেও তারা জনবল সংকটের দোহাই দিয়ে দায় সারছেন। উল্টো পরামর্শ দিচ্ছেন করোনা পরীক্ষা করতে জেলা সদর হাসপাতালের শরণাপন্ন হতে। এতে একদিকে নাজুক সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা অপরদিকে লকডাউনে যানবাহন চলাচল সীমিত হওয়ায় বিপাকে পরেছে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের স্বাস্থ্য সেবাগ্রহিতারা।

নূরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুহম্মদ মশিউর রহমান জানান, গত কয়েকদিন ধরে তীব্র জ্বর ও ব্যাথায় ভোগছিলেন। করোনা টেস্ট করাতে গত তিনদিন ধরে দোয়ারাবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যোগাযোগ করেও কোনো কাজ হয়নি। ফলে বাধ্য হয়ে শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে করোনা টেস্ট করাতে হয়েছে।

তিনি আরো জানান, হাসপাতালের টিএইচও ডা. দেলোয়ার হোসেনের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করলে তিনি আমাকে জেলা সদর হাসপাতালে করোনা টেস্টের পরামর্শ দিয়েছেন এবং জানিয়েছেন জনবল সংকট থাকায় করোনা টেস্ট বন্ধ রাখা হয়েছে।

শুধু শিক্ষক মশিউর রহমানই নয় গত কয়েক দিন ধরে দোয়ারাবাজার হাসপাতালে করোনা টেস্ট করাতে এসে তারমতো আরো অনেকেই  টেস্ট না করে হতাশ হয়ে ফিরেছেন।

এ বিষয়ে জানতে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. দেলোয়ার হোসেনের মোবাইলে কল দেয়া হলেও কল রিসিভ না করায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

যোগাযোগ করা হলে হাসপাতালের আরএমও ডা. আল আমিন জানান, জনবল সংকটের কারণে করোনা টেস্ট করা আপাতত বন্ধ আছে।

এ বিষয়ে সিভিল সার্জন ডা. শামস উদ্দিন জানান, করোনা টেস্ট বন্ধ রাখা হয়নি। আজকেও স্যাম্পল পাঠানো হয়েছে। অভিযোগের বিষয়টি আমরা দেখব।

 

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh