নাটোরে কেজি দরে তরমুজ বিক্রি করলেই শাস্তি

তরমুজের আড়তে অভিযান। ছবি: নাটোর প্রতিনিধি

তরমুজের আড়তে অভিযান। ছবি: নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরে কেজি দরে তরমুজ বিক্রি না করতে বিধিনিষেধ দিয়েছে পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা।  

শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) থেকে কেজি ধরে কোনো আড়তদার, খুচরা ব্যবসায়ী তরমুজ ক্রয়-বিক্রি করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) বিকেলে শহরের বিভিন্ন স্থানে কেজি দরে তরমুজ বিক্রির চিত্র দেখে তিনি ব্যবসায়ীদের এই নির্দেশ দেন।

রমজান মাসের পাশাপাশি তীব্র তাপদাহের কারণে চাহিদা বেড়ে যায় তরমুজের। এ সুযোগে ব্যবসায়ীরা কেজি দরে তরমুজ বিক্রি শুরু করে। প্রতি কেজি তরমুজ নাটোর শহরে ৪৫ থেকে ৫৫ টাকায় বিক্রি করতে দেখা যায়। এ নিয়ে সাধারণ মানুষের মনে মিশ্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়।

বিকেলে পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহার নেতৃত্বে শহরের বড়হরিশপুর বাইসপাস এলাকায় তরমুজের আড়তের অভিযান পরিচালনা করা হয়। 

এ সময় তরমুজ পরিমাপের যন্ত্র জব্দ করে পুলিশ। এছাড়া পুলিশ সুপার শহরের স্টেশন বাজার, চকবৈদ্যনাথের তরমুজের আড়ত পরিদর্শন করেন। এ সময় পুলিশের অভিযানে ৪০০ টাকার তরমুজ মুহূর্তের মধ্যে ১৫০ টাকায় নেমে আসে। তরমুজ ক্রয়-বিক্রি নিয়ে পুলিশ সুপারের কাছে আনা অভিযোগ তুলে ধরেন সাধারণ মানুষ।

এ সময় পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, আগামীকাল (শুক্রবার) থেকে নাটোর জেলায় কেজি দরে কোনো তরমুজ বিক্রি হবে না। প্রতিটি তরমুজের গায়ে ওজন লিখে রাখতে হবে। আমরা বড় বড় তরমুজ আড়তগুলো অভিযান পরিচালনা করবো। যাতে করে তারা খুচরা ব্যবসায়ীদের কাছে কেজি ধরে তরমুজ বিক্রি করতে না পারে। তাছাড়া তাদের ইজারা কিভাবে হল সে বিষয়টিও পুলিশ দেখবে। আশা করছি তরমুজের দাম ক্রেতাদের নাগালে চলে আসবে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh