শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে চলছে ১৪ ফেরি, পাটুরিয়ায় চাপ কম

সকাল থেকে বেশ স্বাভাবিক রয়েছে শিমুলিয়া ঘাটের যাত্রী পারাপার। ছবি : সংগৃহীত

সকাল থেকে বেশ স্বাভাবিক রয়েছে শিমুলিয়া ঘাটের যাত্রী পারাপার। ছবি : সংগৃহীত

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ছোট-বড় ১৪টি ফেরি চলাচল করছে। গত কয়েকদিন ঘাট এলাকায় যাত্রী ও যানবাহনের চাপ থাকলেও আজ মঙ্গলবার (১১ মে) সকাল থেকে বেশ স্বাভাবিক রয়েছে শিমুলিয়া ঘাটের যাত্রী পারাপার।

এদিকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে জরুরি পরিষেবার আওতাধীন লাশবাহী গাড়ি ও অ‌্যাম্বুলেন্স পারাপারে দুইটি ফেরি চলাচল করছে। এ ফেরিতেও বেশ কিছু যাত্রীও পার হয়েছেন। 

শিমুলিয়া ঘাট সূত্র ও স্থানীয় লোকজন জানান, গত কয়েকদিন এই ঘাট দিয়ে সীমিত পরিসরে ফেরি চলাচল করেছে। ঈদকে সামনে রেখে দক্ষিণবঙ্গগামী যাত্রীরা শিমুলিয়া ঘাটে ভিড় জমান। সবকিছু বিবেচনায় এনে গতকাল সোমবার (১০ মে) সন্ধ্যা থেকে এই নৌপথে থাকা ফেরিগুলো চালানো শুরু হয়।

সরেজমিন দেখা যায়, আজ ভোর থেকে যাত্রীরা ঘাটে আসা শুরু করেন। ঘাটের সব কটি ফেরি চলাচল করায় কোনো অপেক্ষা ছাড়াই ফেরিতে উঠতে পারছেন যাত্রীরা। প্রতিটি ফেরিতে এখনো যানবাহনের তুলনায় যাত্রীর সংখ্যাই বেশি। অধিকাংশ যাত্রীর মুখে মাস্ক থাকলেও ছিল না সামাজিক দূরত্ব।

শিমুলিয়া ঘাটের প্রবেশমুখ শিমুলিয়া-ভাঙ্গা সড়কে মোতায়েন আছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের সদস্যরা (বিজিবি)। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ঘাটের দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা বলেন, সরকারও চায় না মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ছোট নৌযান ও চোরাই পথে পদ্মা পাড়ি দিক, আবার ঈদে বাড়ি ফিরতে গিয়ে দেশে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাক। তাই শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথ দিয়ে সব কটি ফেরি চালানো হচ্ছে। এতে যাত্রীদের ভোগান্তি কমবে।

ফেরি চলাচলের বিষয়ে জানতে শিমুলিয়া ঘাটের বিআইডব্লিউটিসির একাধিক কর্মকর্তার মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও কেউ কল ধরেননি।

এদিকে বিআইডব্লিটিসি আরিচা কার্যালয়ের ডিজিএম মো. জিল্লুর রহমান বলেন, সোমবার বিকেলে সাধারণ পণ্যবাহী ট্রাকের চাপ ছিল। এছাড়া সারাদিনে জরুরি পরিষেবার আওতায় যানবাহন পারাপারের সময় যাত্রীদের পার করা হয়েছে। বিকেলে সব ফেরি চালুর সিদ্ধান্ত নিলেও পরে তা প্রত্যাহার করা হয়েছে। 

তিনি বলেন, এখন থেকে আগের নিয়মেই ফেরি চলবে। সন্ধ্যা ৬টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত সাধারণ পণ্যবাহী ট্রাক পারাপার করা হবে। এছাড়া ২৪ ঘণ্টায় জরুরি পরিষেবার অন্তর্ভুক্ত লাশবাহী গাড়ি ও অ‌্যাম্বুলেন্স পারাপার করা হবে।

তিনি আরো জানান, আজ সকালে পাটুরিয়া থেকে দুইটি ফেরি লাশবাহী গাড়ি ও অ‌্যাম্বুলেন্স নিয়ে দৌলতদিয়া ঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে গেছে। এ ফেরিতে কিছু যাত্রীও গেছেন। তবে ঘাট এলাকায় তেমন যাত্রীর চাপ নেই। 

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh