বগুড়ায় ফিলিপাইনের ব্ল্যাক সুগার কেইন

ব্ল্যাক সুগার কেইন

ব্ল্যাক সুগার কেইন

বগুড়ার ক্ষেতে এবার শোভা পাচ্ছে ফিলিপাইনের আখ ব্ল্যাক সুগার কেইন। চাষি আহসানুল কবির ডালিমের জমিতে প্রায় ৮ ফুট লম্বা হয়েছে আখটি। আখক্ষেত দেখতে ও চাষে আগ্রহী হয়ে স্থানীয় চাষিসহ সাধারণ মানুষ ভিড় করছে। জেলার কৃষি কর্মকর্তারা বলছেন, প্রতিবিঘা চাষ করে খরচ শেষে আড়াই থেকে তিন লাখ টাকা আয় করতে পারবে চাষিরা।

বগুড়া সদর উপজেলার উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. এনামুল হক জানান, ফিলিপাইনের আখগুলো বগুড়ায় আর কেউ চাষ করেনি। ১১ শতক জমি থেকে যে ফলন পাবে, তা সর্বনিম্ন ৫০ টাকা করে বিক্রি করলেও তিনি ১ লাখ টাকার ফলন বিক্রি করতে পারবেন। আর যদি ১০০ টাকা করে বিক্রি করেন তাহলে দুই লাখ টাকা বিক্রি করতে পারবেন, যা খরচ বাদে অর্ধেক টাকা আয় হবে। আর বিঘাপ্রতি চাষের খরচ বাদে কৃষকের আয় হবে আড়াই থেকে তিন লাখ টাকা। আবার এক বিঘা জমিতে প্রায় ৫০ হাজার আখ পাওয়া যাবে। প্রতিটি আখ ১০ টাকা করে বিক্রি করলেও প্রায় ৫ লাখ টাকাই হবে। সেখান থেকে ১ বিঘা জমির সার, সেচ, বীজ, শ্রম বাদ দিলে আড়াই থেকে তিন লাখ টাকা আয় করা যাবে বলে তিনি জানান। 

জানা যায়, বগুড়া সদর উপজেলার লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নের কাজী নুরইল গ্রামের আহসানুল কবির ডালিম তার বাড়ির পাশের নিজের ১১ শতক জমিতে ফিলিপাইনের আখ ব্ল্যাক সুগার কেইন চাষ করেছেন। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার প্রশিক্ষকের চাকরি ছেড়ে দিয়ে কৃষির প্রতি ঝুঁকে পড়া ডালিমের আখক্ষেতে ফলন ধরায় আশপাশের চাষিরাও ব্ল্যাক সুগার কেইন চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছে। আখটি দেখতে কালো খয়েরি। লম্বায় সাধারণত ১২ ফুট থেকে ১৬ ফুট হয়ে থাকে। 

দেশীয় আখের মতো হলেও রয়েছে বেশ কিছু ভিন্নতা। এই আখের কাণ্ড নরম, রস বেশি, মিষ্টি বেশি, চাষের পর লাভ বেশি। প্রায় দুই বছর আগে প্রথমে তিনি ১৬টি বীজ সংগ্রহ করেন। বীজ থেকে তার টিকে যায় ৮টি বীজ। তা থেকে আরও বীজ তৈরি করে চাষ করেন। এখন তার ক্ষেতে শোভা পাচ্ছে ২ হাজার ফিলিপাইনের আখ ব্ল্যাক সুগার কেইন। 

আখগুলো ১০ থেকে ১১ মাসে ফলন দেয়। গোড়ালি থেকে পুরো কাণ্ডই মোটা ও কিছুটা নরম। আখগুলো বড় হওয়ার পর বিভিন্ন নার্সারি মালিক ও কৃষিভিত্তিক বেসরকারি প্রতিষ্ঠান আখক্ষেত পরিদর্শন করে বীজ কেনার জন্য ধরনা দিচ্ছেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh