পরিবারের সাথে ঈদ করা হলো না মা-মেয়ের

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা সীমান্তের পাটলাই নদীতে স্টিলবডি নৌকার সাথে স্পিডবোটের সংঘর্ষে পানিতে ডুবে মা ও মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে আরো ছয়জন।

গতকাল সোমবার (১৯ জুলাই) মাগরিবের আজানের আগে বালিয়াঘাট বিজিবি ক্যাম্পের সামনে পাটলাই নদীতে এ দুঘটনাটি ঘটে। 

নিহতরা হলেন- উপজেলার সদর ইউনিয়ন রতনশ্রী গ্রামের বদরুল আমিন ওরফে বরুজের স্ত্রী জোসনা আক্তার(৩০) ও মেয়ে রুমা আক্তার (৮)। 

এই ঘটনায় আহত হয়েছেন- উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হোসেন খাঁর মেয়ে রিনা বেগম (৩৫), শাপলা (১৮) ও স্পিডবোট চালক বদরুল আমিন বরুজসহ (৪০) ছয়জন। 

উপজেলার ট্যাকেরঘাট পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ এসআই খাইরুল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানান, ঈদের কেনাকাটা করার জন্য বেশ কয়েকজন উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের বাদাঘাট বাজারে যায়। কেনাকাটা শেষ করে শিশুসহ ৮-৯জন বিকেলে স্পিডবোটে করে বাড়ি ফেরার সময় বালিয়াঘাট বিজিবি ক্যাম্পের সামনে বিপরীত দিক দিয়ে আসা একটি বালি ও পাথরবোঝাই ইঞ্জি চালিত বলগেইটের সাথে মুখোমুখি সংর্ঘষ হয়। এতে স্পিডবোটটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। 

এসময় স্পিটবোটে থাকা সবাই সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও স্পিডবোট চালক বদরুল আমিন ওরফে বুরুজের স্ত্রী ও ৮ বছরের মেয়ে পানিতে তলিয়ে যায়। এরপর স্থানীয়রা, পুলিশ ও বিজিবি রাত সাড়ে ১০টায় সময় মা ও মেয়ের লাশ উদ্ধার করে। 

এঘটনায় আহত রিনা বেগমকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আর বাকিদের প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। 

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh