সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙার কারণ জানালেন পারভেজ

অভিযুক্ত পারভেজ।

অভিযুক্ত পারভেজ।

আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় পারভেজ নামের এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সেই সঙ্গে ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী একজনকে পাওয়া গেছে বলে শুক্রবার (৩০ জুলাই) নিশ্চিত করেছেন কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবু বকর সিদ্দিক।

পারভেজ কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার রায়টুটী গ্রামের মৃত শাহজাহান মিয়ার ছেলে। বর্তমানে শহরের শোলাকিয়ার বনানী মোড়ে নুর ইসলামের বাড়িতে থাকতেন।

ওসি আবু বকর সিদ্দিক জানান, সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িত একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেই সঙ্গে ঘটনার একজন প্রত্যক্ষদর্শীও পাওয়া গেছে।

তিনি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ম্যুরাল ভাঙচুরের কথা স্বীকার করেছেন পারভেজ। কী কারণে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে তা জানতে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে যেখানে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরাল নির্মাণ করা হয়েছে, সেখানে পারভেজের একটি অবৈধ টং দোকান ছিল। সেখানে মোটরসাইকেলের স্টিকার ও অন্যান্য সামগ্রী বিক্রি করতেন তিনি। পরবর্তীতে নরসুন্দা নদী খননের সময় অবৈধ স্থাপনাটি ভেঙে দিয়েছিলো প্রশাসন।

আবু বকর সিদ্দিক বলেন, পারভেজ যখন ম্যুরালটি ভাঙছিলেন, তখন সগড়া বিশ্বরোডের বাসিন্দা রাজমিস্ত্রি নয়ন ঘটনাটি দেখতে পান। তার বিবরণ অনুযায়ী পারভেজের স্বীকারোক্তির মিল পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার রাতে শহরের আখড়া বাজার ব্রিজের পাশে নরসুন্দা নদী সংলগ্ন সৈয়দ নজরুল ইসলাম চত্ত্বরে ম্যুরালটিতে ভাঙচুর চালানো হয়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় মামলা করা হয়েছে। বিশেষ ক্ষমতা আইনে পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //