স্ত্রীকে বস্তায় ভরে নদীতে ফেলে দেয়ার ঘটনায় মামলা

গৃহবধূকে হত্যার চেষ্টা

গৃহবধূকে হত্যার চেষ্টা

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় মাইফুল নেছা (২৩) নামে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে হাত-পা বেঁধে ও মুখে স্কচটেপ লাগিয়ে প্লাস্টিকের বস্তায় ভরে রাতের আধারে নদীতে ফেলে হত্যার চেষ্টায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

শনিবার (৩১ জুলাই) রাত ১২টার পরে ভুক্তভোগী নিজেই বাদী হয়ে মামলাটি তার বড় ভাইয়ের মাধ্যমে দায়ের করেছেন। মামলায় আসামি করা হয়েছে, জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার চৌধুরীপাড়া গ্রামের বাসিন্দা স্বামী আবু তাহের জান্নাত, শ্বশুর সাজিদুল মিয়া, দুই দেবর জাকির হোসেন (২২) ও বাবুল মিয়া (২৫) এবং ননাই গ্রামের মামা শ্বশুর আলী হোসেন (৪০)।

মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আব্দুল লতিফ তরফদার। 

গত শুক্রবার (৩০ জুলাই) রাত ৮টায় উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের বাদালারপাড় গ্রামে কারী মৃত নিজাম উদ্দিনের বাড়িতে ঘটনাটি ঘটে। মাইফুল নেছা কারী মৃত নিজাম উদ্দিনের মেয়ে। ঘটনার পরে পরিবারের লোকজন মাইফুলকে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য হমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা এলাকা ছেড়ে ঘা ডাকা দিয়েছে।

এদিকে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খবর পেয়ে শনিবার রাত সাড়ে ৮টায় হাসপাতালে গিয়ে মাইফুল নেছার সার্বিক খোঁজ খবর নেন ও আইনি সহায়তার আশ্বাস দেন। এই ঘটনায় এলাকায় জুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ তরফদার বলেন, ঘটনার পরপর খবর পেয়ে বাদাঘাট পুলিশ ক্যাম্পের এএসআই মো. শহিদুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ভুক্তভোগীর স্বামী, শ্বশুর, মামা শ্বশুর ও দুই দেবকে আসামি করে মামলা হয়েছে। অভিযুক্তরা এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। আমরা অভিযানে আছি। 

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //