মুহিবুল্লাহ হত্যা: দায় স্বীকার করে আজিজুলের জবানবন্দি

রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহকে হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন কিলিং মিশনে অংশ নেয়া আজিজুল হক।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) সন্ধ্যায় কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জেরিন সুলতানার আদালতে তিনি এ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

আদালত দেয়া জবানবন্দিতে গ্রেফতার আজিজুল হক বলেছেন, ঘটনার সময় তিনি অস্ত্র নিয়ে মুহিবুল্লাহর অফিসের সামনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। মুহিবুল্লাহকে তিন রাউন্ড গুলি করেন মাস্টার মাইন্ড আবদুর রহিম। তাদের গুলি মিস হলে সে মুহিবুল্লাহকে গুলি করার জন্য প্রস্তুত ছিল।

মাস্টার আবদুর রহিমের গুলিতে মুহিবুল্লাহর মৃত্যু নিশ্চিত করে তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। এ কিলিং মিশনে ১৯ জন অংশ নেন। এতে একেক জনকে ভিন্ন ভিন্ন দায়িত্ব দিয়েছিলেন আবদুর রহিম।

এর আগে শনিবার ভোরে রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে আজিজুল হককে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর পুলিশের কাছে সে মুহিব্বুল্লাহ হত্যায় সরাসরি অংশ নেয় বলে স্বীকার করেছিল। এরপরই তাকে এপিবিএন পুলিশ উখিয়া থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

পরে সে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে রাজি হলে পুলিশ শনিবার বিকেল ৫টায় কক্সবাজারের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জেরিন সুলতানার আদালতে নিয়ে আসেন উখিয়া থানা-পুলিশ। প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে বিচারক আজিজুল হকের জবানবন্দি গ্রহণ করেন। জবানবন্দি গ্রহণ শেষে বিচারক তাকে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেন।

মুহিব্বুল্লাহ হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই কার্তিক চন্দ্র জানান, গ্রেফতার আসামি আজিজুল হক সরাসরি মুহিব্বুল্লাহ হত্যায় অংশ নিয়েছে বলে আদালতে  স্বীকার করেন এবং ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দিতে আজিজুল হক জানিয়েছেন, গত ২৯ সেপ্টেম্বর রাতে উখিয়া কুতুপালং লম্বাশিয়া ১ ইস্ট নম্বর ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের শীর্ষ নেতা মুহিব্বুল্লাহর নিজ অফিসে তার সহকর্মীদের সাথে আলাপ করছিল। সেখানে তাকে হত্যার মিশনে যে ৫ জন রোহিঙ্গা অংশ নিয়েছিল তাদের মধ্যে আজিজুল হক নিজেও একজন। তাদের তিনজনের কাছে অস্ত্র ছিল। ৫ জনের মধ্যে তারা তিনজন মুহিব্বুল্লাহর অফিসে ঢুকে মুহিব্বুল্লাহকে গুলি করে। অপর দুজন মুহিব্বুল্লাহর অফিসের বাইরে পাহারায় ছিল। মাত্র দুই মিনিটে হত্যা মিশন শেষ করে তারা।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //