কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যা মামলায় গ্রেফতার এক আসামি

সুমন মিয়া। ছবি : সংগৃহীত

সুমন মিয়া। ছবি : সংগৃহীত

কুমিল্লা নগরীর পাথুরিয়া পাড়ায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত সিটি করপোরেশনের ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ মো. সোহেল ও আওয়ামী লীগ নেতা হরিপদ সাহা হত্যা মামলায় এজহারভুক্ত আসামি সুমন মিয়াকে (৩২) গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

আজ বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকাল ১১টার দিকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সুমন নগরীর ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের সুজানগর পূর্বপাড়া এলাকার মৃত কানু মিয়ার ছেলে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১১, সিপিসি-২ কুমিল্লার কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ সাকিব হোসেন। 

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) রাতে নিহত কাউন্সিলের ছোট ভাই সৈয়দ মো. রুমন বাদী হয়ে সুমনসহ ১১ জন নামীয় ও ১০ জন অজ্ঞাতের নামে কোতোয়ালি মডেল থানায় হত্যা মামলা করেন।

এ মামলায় প্রধান আসামি করা হয়েছে ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের সুজানগর পূর্বপাড়া এলাকার মৃত জানু মিয়ার ছেলে সন্ত্রাসী ও মাদক কারবারি শাহ আলমকে। এছাড়া তার সহযোগী সোহেল মিয়া ওরফে জেল সোহেলকে মামলার দ্বিতীয় আসামি করা হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদর জানান, এ মামলার এজহারভুক্ত আসামি সুমনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং বাকি আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

গত সোমবার (২২ নভেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে নগরীর পাথরিয়াপাড়া থ্রি স্টার এন্টারপ্রাইজে কাউন্সিলর কার্যালয়ে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন ওই দুইজন। কাউন্সিলর সোহেলকে এলোপাতাড়ি ৯টি গুলি করে ঘাতকরা। এতে তার মৃত্যু নিশ্চিত হয়ে যায়। হামলাকারীদের পিস্তলের দুটি গুলি সোহেলের মাথায়, দুটি বুকে, অন্য পাঁচটি পেট ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে লাগে।

সোহেল কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য ও ওই ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। 

নিহত হরিপদ সাহা নগরীর ১৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য ও সাহাপাড়া এলাকার বাসিন্দা। তার বুকে ও পেটে গুলি লেগেছিল। এছাড়া এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ আরও পাঁচজন কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //