আদমজী ইপিজেডের আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি

সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী ইপিজেড এলাকায় নির্মাণাধীন পাওয়ার প্ল্যান্টে লাগা আগুন সাত ঘণ্টাতেও নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আগুন নিয়ন্ত্রণে বর্তমানে ফায়ার সার্ভিসের আটটি ইউনিট কাজ করছে।

এদিকে আগুন নিয়ন্ত্রণের জন্য নারায়ণগঞ্জসহ আশপাশের এলাকার গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে রাখা হয়েছে। এর আগে শুক্রবার (১৭ জুন) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে আগুনের ঘটনা ঘটে। 

পাইলিংয়ের কাজ চলার সময় গ্যাস লাইন ফেটে ভয়াবহ আগুনের ঘটনায় উচ্চচাপসম্পন্ন গ্যাস লাইন বন্ধ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ পায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ্ আল আরেফীন। তবে গ্যাস সরবরাহ বন্ধের পরেও আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি। বর্তমানে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে ফায়ার সার্ভিসের আটটি ইউনিট কাজ করছে বলে জানান তিনি।


জানা গেছে, শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে আগুনের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট অগ্নি নির্বাপণের কাজ শুরু করেন। পরে পরিস্থিতির অবনতি ঘটায় নারায়ণগঞ্জ ও হাজীগঞ্জের আরো চারটি ইউনিট সেখানে যোগ দেয়। এরপর আরো দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে আসে। 

এদিকে আগুনের তাপ অনেক বেশি থাকায় ফায়ার ফাইটাররা কাছে যেতে পারেননি। পরে আদমজী ইপিজেডের গ্যাস লাইনের চাপ কমিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন তারা। বর্তমানে ফায়ার সার্ভিসের আট ইউনিট একযোগে কাজ করছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ইপিজেডের ভেতরে নির্মাণাধীন পাওয়ার ফ্লান্টের পাইলিং কাজ করার সময় গ্যাসের পাইপ লাইন ফেটে গিয়ে এই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।


নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ্ আল আরেফীন জানান, ইপিজেডের ভেতরে আগুন লেগেছে। তবে আগুন কোনো গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে লাগেনি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পাইলিংয়ের সময় গ্যাস লাইন ফেটে আগুন লেগেছে। এটি একটি নির্মাণাধীন পাওয়ার প্ল্যান্ট। আমাদের সিদ্ধিরগঞ্জ ইপিজেড, হাজীগঞ্জ ও মন্ডলপাড়া স্টেশনের আট ইউনিট আগুন নেভাতে কাজ করছে। আগুনের সূত্রপাত ও ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ পরে বিস্তারিত জানানো হবে। তবে আগুনের ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //