আনসার সদস্যকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ সহকর্মীর বিরুদ্ধে

মানিকগঞ্জের ঘিওরে এক আনসার সদস্যকে গলা কেটে হত্যা অভিযোগ উঠেছে তারই সহকর্মীর বিরুদ্ধে। নিহত কুদ্দুসের (৪০) বাড়ি দৌলতপুর উপজেলার বড় হাতকোড়া গ্রামে।

শনিবার (২৩ জুলাই) সকালে উপজেলা আনসার অফিসের কনফারেন্স রুম থেকে মরদেহটি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে মো. শাহীন (২৬) নামে আরেক আনসার সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। তার বাড়ি ঘিওর উপজেলার বাইলজুরী গ্রামে।

ঘিওর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিয়াজ উদ্দিন বিপ্লব বলেন, ভোর রাত সাড়ে ৩টার দিকে ঘিওর আনসার অফিসের কনফারেন্স রুমে কুদ্দুসকে বটি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করা হয়। শাহীন আমাদের কাছে স্বীকার করেছেন, তিনি কুদ্দুসকে হত্যা করেছেন।

তিনি আরো জানান, মরদেহ গুম করার জন্য হত্যার পর বস্তায় ভরে রাখা হয়েছিল। 

আর্থিক লেনদেন নিয়ে সৃষ্ট বিবাদের জেরে এই হত্যাকাণ্ড বলে পুলিশের ধারণা। এদিকে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //