ICT Division

ইতালি যাওয়ার স্বপ্ন কফিনে বন্দি, থানায় হত্যা মামলা

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার একুয়ান ইসলামকে (১৯) ইতালি পাঠানোর কথা বলে লিবিয়ায় হত্যার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

গতকাল সোমবার (৩ অক্টোবর) একুয়ান ইসলামের বাবা তরিকুল ইসলাম বাদি হয়ে চার জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। নিহত একুয়ান ইসলাম (১৯) উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের শ্রীধরপাশা গ্রামের বাসিন্দা তরিকুল ইসলামের ছেলে। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, মামলার চার আসামির মধ্যে দু’জন প্রবাসে। বাকি দু’জন পলাতক রয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।

মামলা দায়ের বিষয়ে একুয়ানের বাবা তরিকুল ইসলাম বলেন, জায়গাজমি বিক্রি করে ১৯ লাখ টাকা দিয়েও ছেলেকে বাঁচাতে পারলাম না। এখন শুধু আমার ছেলের হত্যাকারীদের বিচার চাই।

প্রসঙ্গত, গেল বছরের ১৩ এপ্রিল উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের শ্রীধরপাশা গ্রামের লিবিয়ায় অবস্থানরত দালাল আলী হোসেনের মাধ্যমে সাত লাখ টাকায় ইতালি পৌঁছে দেওয়ার চুক্তিতে লিবিয়া যায় একুয়ান। সেখানে পৌঁছার পর দালাল চক্র তাকে আটক করে অমানবিক নির্যাতন চালায় এবং মাফিয়ার হাত থেকে প্রাণ রক্ষার কথা বলে ২৩ এপ্রিল আরো সাত লাখ টাকা পাঠায় একুয়ানের পরিবার। একবছর পর চলতি বছরের ১৫ জুন আরো পাঁচ লাখ টাকা দিয়ে তাকে ইতালি পাঠানোর চুক্তি হয় দালাল আলী হোসন ও তার পরিবারের সঙ্গে।

এর দু’দিন পর একুয়ানের বাবা দালালদের তার ছেলের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করলে তারা জানায়- একুয়ান ১৬ জুন মারা গেছে। তিন মাস পরে গত বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) লিবিয়া ও বাংলাদেশ দূতাবাসের সহযোগিতায় একুয়ানের মরদেহ দেশে আসে। পরদিন শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল থেকে ময়নাতদন্তের পর গ্রামের বাড়িতে তার দাফন করা হয়।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //