কেরু চিনিকলে আখ মাড়াই শুরু

চুয়াডাঙ্গার দর্শনা কেরু এ্যান্ড কোম্পানির চিনিকলে আখ মাড়াই মৌসুমের উদ্বোধন করা হয়েছে। 

৬১ হাজার ৫০০ মেট্রিকটন আখ মাড়াই করে ৫৩তম মাড়াই দিবসে ৩ হাজার ৮১০ মেট্রিকটন চিনি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে কেরু এ্যান্ড কোম্পানি চিনিকলের ডোঙ্গায় আখ ফেলে মাড়াই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান অপু।

আজ শুক্রবার (২৩ ডিসেম্বর) বিকাল ৩টায় মাড়াই কার্যক্রম উদ্বোধন উপলক্ষে চিনিকল কেইন কেরিয়ার প্রাঙ্গণের অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কেরু এ্যান্ড কোম্পানি চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন। 

ব্যবস্থাপনা পরিচালক (কৃষি) আশরাফুল আলম ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান মঞ্জু, দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলী মনছুর বাবু ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা বেগম এবং মহাব্যবস্থাপক (সম্প্রসারণ) আহসান হাবিব।

অতিথি ছিলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুন্না বিশ্বাস, মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) ইউসুফ আলী, দর্শনা ইক্ষু গবেষণা কেন্দ্রের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ড. জামাল উদ্দিন, আখচাষী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বারী, শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি ফিরোজ আহম্মেদ সবুজ ও সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান মাসুদ। 

চিনিকল কর্তৃপক্ষের তথ্য মতে, এবার ৪ হাজার ২৩০ একর জমিতে আখ দণ্ডায়মান রয়েছে। যার মধ্যে চিনিকলের নিজস্ব জমির পরিমাণ ১ হাজার ৫০ একর। বাকি ৩ হাজার ১৮০ একর কৃষকদের জমিতে আখ চাষ করা হয়েছে। আখের সঠিক পরিচর্যা, আধুনিক পদ্ধতিতে আখচাষ ও চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ কর্মকর্তাদের সার্বিক দেখভালের কারণে এবার আখের ফলন ভালো হয়েছে। যে কারণে ধারণা করা হচ্ছে আখ মাড়াইসহ চিনি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সম্ভব হবে। ২০২২-২৩ আখ রোপণ মৌসুমে আনুষ্ঠানিকভাবে আখ রোপণ শুরু করা হয় গত ১ সেপ্টেম্বর। এ বছর ৭ হাজার জমিতে আখ রোপণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। 

তবে গতবারের তুলনায় এবার আখের মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছে। মিল গেটে ১৪০ টাকা থেকে বাড়িয়ে দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ১৮০ টাকা। এছাড়া আখক্রয় কেন্দ্রগুলোতে ১৩৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১৭৬ টাকা।

চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান অপু বলেন, ৫ বছর চিনি শিল্পকে টিকিয়ে রাখার জন্য কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। ভালো মানের আখ উৎপাদনের ক্ষেত্রে আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। ভালো আখ মাড়াই করে চিনি উৎপাদন বৃদ্ধি করা সম্ভব। 

তিনি আরো বলেন, আমরা আখের মূল্য বাড়ানোর জন্য চাষিদের পক্ষে প্রস্তাব রেখেছি সেটা দ্রুত কার্যকর করা হবে। আগামী মৌসুমে চিনিকলে উৎপাদন লাভজনক অবস্থায় নেয়া সম্ভব না হলেও বড়ধরণের লোকসান কমাতে প্রয়োজনীয় সব প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। কৃষকদের আখচাষে আগ্রহী করে তোলা হচ্ছে। আখচাষীদের সকল ধরণের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করা হচ্ছে। 

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2023 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //