মাধ্যমিকের সংশোধিত ভর্তি নীতিমালা প্রকাশ

সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ২০২১ শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থী ভর্তির সংশোধিত নীতিমালা প্রকাশ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

গতকাল বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মাহবুব হোসেন স্বাক্ষরিত নীতিমালাটি ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়।

নীতিমালা অনুযায়ী, প্রাক-প্রাথমিক থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থী ভর্তি করা যাবে। প্রথম শ্রেণিতে ছয় বছরের বেশি বয়সী শিশুদের ভর্তি করতে হবে। সেই হিসেবে ধরে দ্বিতীয় শ্রেণি থেকে নবম শ্রেণিতে শিক্ষার্থী ভর্তি করতে পারবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ঢাকা মহানগরীর স্কুলের ক্ষেত্রে আশপাশ এলাকা কোটা হিসেবে বিবেচিত হবে। আশপাশের এলাকার শিক্ষার্থীদের জন্য ৪০ শতাংশ কোটা থাকবে। অবশিষ্ট ৬০ শতাংশ আসন সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। এর মধ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের জন্য ১০ শতাংশ, ৫ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা, ২ শতাংশ প্রতিবন্ধী, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষক-কর্মচারীর সন্তানের জন্য ২ শতাংশ কোটা থাকছে।

নীতিমালায় শিক্ষার্থীর বয়স, ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ও সময় নির্ধারণ, ভর্তি পরীক্ষার পদ্ধতি, বিদ্যালয়গুলো ক্লাস্টার বিভক্তিকরণ, ভর্তির আবেদন ফরম, উত্তরপত্র মূল্যায়ন, ফলাফল তৈরিসহ বিভিন্ন দিকনির্দেশনা রয়েছে।

মহানগরী, বিভাগীয় শহর ও জেলা সদরের সকল সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন আবেদনের ফি নেয়া এবং ফলাফল অনলাইনে প্রকাশ করতে হবে। উপজেলা সদরে অবস্থিত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো কেন্দ্রীয় অনলাইন পদ্ধতির মাধ্যমে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করবে। 

তবে নিয়ন্ত্রণ বহির্ভূত কোনো কারণে এ কার্যক্রম সম্পন্ন করা সম্ভব না হলে কেবল উপজেলার ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কমিটির সিদ্ধান্তক্রমে তা ম্যানুয়ালি করতে হবে।

ভর্তির আবেদন ফরম বিদ্যালয়ে পাওয়া যাবে এবং মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর/জেলা প্রশাসক/সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (যদি থাকে) থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

ভর্তির আবেদন ফরম বিতরণ ও জমার জন্য বিজ্ঞপ্তিতে সুস্পষ্টভাবে তারিখ ও সময় উল্লেখ করতে হবে। তবে আবেদন ফরম বিতরণ ও জমার জন্য ন্যূনতম সাত কার্যদিবস সময় দিতে হবে।

আবেদন ফরমের নির্ধারিত স্থানে পরীক্ষার্থীর দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি আঠা দিয়ে সংযুক্ত করতে হবে। আবেদন ফরম জমা দেয়ার সময় ফরমের নিচের অংশ রোল নম্বর দিয়ে প্রবেশ হিসেবে শিক্ষার্থীকে দেয়া হবে। ওপরের অংশ এক বছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে সংরক্ষণ করতে হবে।

ভর্তির জন্য আবেদন ফরমের দাম ১৭০ টাকা, সেশন চার্জসহ ভর্তি ফি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ২০১৪ সালের পরিপত্র অনুযায়ী আদায় করা যাবে।

ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠানের জন্য সুষ্ঠু আসন বিন্যাস ও পর্যাপ্ত আলো-বাতাসের ব্যবস্থা থাকতে হবে। যথাসম্ভব সাপ্তাহিক ছুটির দিন পরীক্ষা নিতে হবে।

পুরো নীতিমালা দেখতে ক্লিক করুন:

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh