গতানুগতিক অনার্স-মাস্টার্সের কারণে বেকার বাড়ছে: শিক্ষামন্ত্রী

দেশে শিক্ষিত বেকার বাড়ছে, যা মোটেও কাম্য নয় বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। আজ বুধবার (৩০ মার্চ) রাজধানীর রেডিসন ব্লু ঢাকা ওয়াটার গার্ডেন হোটেলে এসিসিএ বাংলাদেশের নতুন সদস্যদের সংবর্ধনা ও সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে এ মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘গতানুগতিক অনার্স-মাস্টার্স কোর্সের কারণে দেশে শিক্ষিত বেকার বাড়ছে, যা মোটেও কাম্য নয়। জনগোষ্ঠীকে দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। এ জন্য বেশ কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে। যা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছি।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, ‘সুশাসন নিশ্চিত করতে হলে মানসম্মত অ্যাকাউন্টিং কোয়ালিফাই মেম্বারদের ভূমিকা রয়েছে। এজন্য আমরা এসিসি কোয়ালিফাইডদের অনার্স মযাদা দেয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করছি।’

অনুষ্ঠানে এ বছর এসিসিএ বাংলাদেশ ৬৯ জন নতুন এসিসিএ সদস্য এবং ৩০ জন নতুন এফসিসিএ সদস্যদের ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে এসিসিএর নতুন সদস্যদের শুভেচ্ছা জানান এসিসিএ বাংলাদেশের হেড অব এডুকেশন অ্যান্ড মেম্বার অ্যাফেয়ার্স প্রমা তাপসী খান এফসিসিএ। এরপর এক ভিডিওবার্তার মাধ্যমে এসিসিএ গ্লোবাল কাউন্সিল প্রেসিডেন্ট অর্লা কলিন্স এবং চিফ এক্সিকিউটিভ হেলেন ব্র্যান্ড বক্তব্য দেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন ইউনিলিভার কনজিউমার কেয়ার লিমিটেডের চেয়ারম্যান মাসুদ খান এফসিএ এবং বিশ্ব ব্যাংকের এডুকেশন স্পেশালিস্ট ও দক্ষিণ এশীয় টিম লিডার টি এম আসাদুজ্জামান এফসিসিএ। গেস্ট অব অনার হিসেবে ছিলেন সামিট কমিউনিকেশনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফ আল ইসলাম এফসিসিএ।

এ ছাড়া এসিসিএ বাংলাদেশের ২০২১ সালের ন্যাশনাল অ্যাডভোকেট, ট্যাক্স গ্রুপ, এডুকেশন গ্রুপ, মেম্বার অ্যাডভাইজরি কমিটির সাবেক ও বর্তমান সদস্য, এমপ্লয়ার, লার্নিং পার্টনারসহ অ্যাকাউন্টিং ও ফাইন্যান্স ইন্ডাস্ট্রির বিভিন্ন পেশাদাররা উপস্থিত ছিলেন।

এসিসিএর নির্ধারিত পেপার শেষ করে অ্যাকাউন্টিং ও ফাইন্যান্স বিষয়ক তিন বছর কাজের অভিজ্ঞতা আছে এমন সদস্যদের এসিসিএ এবং পাঁচ বছর কাজের অভিজ্ঞতা আছে এমন এফসিসিএ সদস্য হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //