এসএসসি পরীক্ষা নিয়ে যা জানালেন কর্তৃপক্ষ

বন্যার কারণে সারা দেশে ১৯ জুন থেকে শুরু হতে যাওয়া এসএসসি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। কেননা, সিলেটসহ দেশের কয়েকটি এলাকায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় পরীক্ষা শুরুর মাত্র দুদিন আগে গত শুক্রবার (১৭ জুন) তা স্থগিত করা হয়। 

এতে অনিশ্চয়তায় পড়া ২০ লাখ শিক্ষার্থীর এখন একটাই প্রশ্ন, কবে শুরু হবে এসএসসি পরীক্ষা।

বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কায়সার আহমেদ বলেন, সিলেটে বন্যাদুর্গতদের জন্য স্কুলগুলোকে আশ্রয়কেন্দ্র করা হয়েছে। পরীক্ষার চেয়ে মানুষের জীবন বড়। যে কারণে ওখানে আপাতত পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না।

তিনি বলেন, সিলেটে পরীক্ষার কাগজ নিয়ে আমরা শঙ্কায় আছি। ওগুলো পানিতে নষ্ট হয়ে গেছে কি না জানি না। তবে, আমাদের স্টকে আরো কাগজ আছে। আমরাও প্রস্তুত আছি। বন্যার পানি নেমে গেলে মন্ত্রী দ্রুত আমাদের সাথে সভা করবেন। সেখানে পরীক্ষার নতুন সূচি ঘোষণা হবে। সে অনুযায়ী, ঈদের আগে পরীক্ষা আয়োজন করতে বললেও আমরা পারব। কারণ, আমাদের প্রশ্নপত্র তৈরি আছে। আমরাও পরীক্ষা আয়োজনে প্রস্তুত।

এর আগে একটি জাতীয় দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শিক্ষা বোর্ডগুলোর চেয়ারম্যানদের সংগঠন আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক এবং ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার বলেছেন, এক সপ্তাহের মধ্যে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হলে ঈদের আগেও পরীক্ষা শুরু করতে পারব। বিষয়টি নির্ভর করছে পরিস্থিতির ওপর। বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হলেই আবারো আমরা এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার নতুন সময়সূচি প্রকাশ করব।

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা পেছানোর বিষয়ে তিনি বলেন, পেছাতেও পারে। কারণ, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার মধ্যে মোটামুটি দুই মাসের একটি বিরতির প্রয়োজন হয়। না হলে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেওয়া কঠিন হয়ে পড়ে। সে ক্ষেত্রে এইচএসসি পরীক্ষা কিছু সময় পিছিয়ে যেতে পারে।

এদিকে, বন্যা পরিস্থিতির অবনতির কারণে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার জন্য ট্রেজারি/থানা/পরীক্ষা কেন্দ্রে রক্ষিত সব মালামাল নিরাপদ ও সতর্কতার সাথে সংরক্ষণ করার জন্য অনুরোধ করেছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাবকমিটি।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //