২য় ধাপের ইউপি নির্বাচনে ৭৩.৪৯% ভোট পড়েছে

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

দ্বিতীয় ধাপের ৮৩৪ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) নির্বাচনে সর্বনিম্ন ভোট পড়েছে ৪২ দশমিক ২৮ শতাংশ। আর সর্বোচ্চ ভোট পড়েছে ৮৯ দশমিক ৭৬ শতাংশ। এ ধাপে ভোট পড়েছে ৭৩ দশমিক ৪৯ শতাংশ।

রবিবার (১৪ নভেম্বর) নির্বাচন কমিশনের (ইসি) যুগ্ম সচিব এস এম আসাদুজ্জামান এ তথ্য জানিয়েছেন।  

প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, এ নির্বাচনে ভোটার ছিল এক কোটি ৪৭ লাখ ৯০ হাজার ৫৫৯ জন। এর মধ্যে ভোট দিয়েছেন এক কোটি আট লাখ ৬৯ হাজার ৪৪৩ জন। অর্থাৎ এ ধাপে ভোট পড়েছে ৭৩ দশমিক ৪৯ শতাংশ।

দ্বিতীয় ধাপের ইউপি ভোটে সর্বনিম্ন ৪২ দশমিক ২৮ শতাংশ ভোট পড়েছে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার এনায়েতপুর ইউপিতে। এ ইউপিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. আসাদুজ্জামান ২৫ হাজার ৩৪৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর আব্দুস সালাম পেয়েছেন ৭ হাজার ৩৬৫ ভোট। এই ইউপিতে মোট ভোটার ছিল ৮১ হাজার ২৯৮ জন। এরমধ্যে ভোট পড়েছে ৩৪ হাজার ৩৭৩টি।

অন্যদিকে, গাইবান্ধা জেলার গাইবান্ধা সদর উপজেলার মোল্লারচর ইউপিতে সর্বোচ্চ ৮৯ দশমিক ৭৬ শতাংশ ভোট পড়েছে। এখানে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. সাইদুজ্জামান সরকার ২ হাজার ৮৫৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. ওবায়দুল হক পেয়েছেন ২ হাজার ৫৫৬ ভোট। এ ইউপিতে মোট ভোটার ছিল ৭ হাজার ৫১৭ জন। ভোট পড়েছে ৬ হাজার ৭৪৭টি।

বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে ৮৩৪টি ইউপিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত ৪৮৬, স্বতন্ত্র ৩৩০, জাতীয় পার্টি ১০, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত চার জন চেয়ারম্যান পদে জয় পেয়েছেন।

এছাড়া জাতীয় পার্টি (জেপি), বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি, খেলাফত মজলিশ ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) একটি করে ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে জয় পেয়েছে। চেয়ারম্যান পদে জয় পায়নি ১১ দল।

দ্বিতীয় ধাপের ইউপি ভোটে চেয়ারম্যান পদে ৮০, সংরক্ষিত মহিলা পদে ৭৬ ও সাধারণ সদস্য পদে ২০৩ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হয়েছেন। তিন পদে মোট বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয় লাভ করছেন ৩৬০ জন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //