পারফিউম তৈরি করে প্রশংসিত নাসরীন

পরিপাটি পোশাক মানানসই সাজ সব ঠিক করার পর আমরা নজর দেই পারফিউমে। পছন্দের সুগন্ধির মাধ্যমেও আমাদের রুচি ও ব্যক্তিত্ব অনেকটাই বোঝা যায়। অনেকে তো শুধু বিশেষ কোনো পারফিউমের জন্যই তার সৌরভ দিয়ে অন্যের কাছে পরিচিত হয়ে যায়। তবে এইবার পারফিউমের সুবাস নয় পারফিউম আবিষ্কার করে ভূয়সী প্রশংসা কুড়িয়েছেন বাংলাদেশি এক নারী। বাংলাদেশে প্রচলিত ৫টি সাদা ফুলের ঘ্রাণ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই পারফিউম তৈরির এই উদ্যোগ নেন সাবেক রাষ্ট্রদূতের স্ত্রী নাসরীন জামির।

নাসরীন জামির পেশায় একজন ইন্টেরিয়র ডিজাইনার। স্বামীর পেশার তাগিদে ফ্রান্সে বাস করতে গিয়ে আকৃষ্ট হন সুগন্ধির প্রতি। বিভিন্ন দেশ ঘুরে এবং গবেষণা করে পারফিউম তৈরির দক্ষতা অর্জন করেন। নিজের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে দেশের বাজারে প্রথমবারের মতো নিয়ে আসেন পারফিউমের বাংলাদেশি সুগন্ধি ব্র্যান্ড জোনাকি ফ্রাগ্রেন্স। দেশে প্রচলিত ৫টি ফুলের নির্যাস দিয়ে তৈরি হচ্ছে জোনাকির এই পারফিউমগুলো। দেশ ছাড়িয়ে এই পারফিউমের সুগন্ধি ছড়াচ্ছে এখন বিদেশের গণমান্য ব্যক্তিদের ঘরেও। 

জোনাকি বাংলাদেশি ব্র্যান্ড হলেও এটি তৈরি করা হয় মালয়েশিয়ায়। কেননা অনেক ঘুরেও দেশের কোথাও ভালো মানের ল্যাব এবং কারখানা খুঁজে পাননি তিনি। বাধ্য হয়ে নিজের ডিজাইন করা পারফিউম নিয়ে চলে যান মালয়েশিয়ায়। সেই দেশের একটি কারখানায় তৈরি করেন পারফিউম। এরপরই বাজারে নিয়ে আসেন ৫ রকমের পারফিউম। 

জোনাকি পারফিউম ডিজাইনার ও উদ্যোক্তা নাসরীন জামির বলেন, তিন বছরের সুগন্ধি সংক্রান্ত গবেষণা, পারফিউমের সৌরভ নির্ধারণ শেষে চার বছর আগে শুরু করেন জোনাকি ফ্রাগ্রেন্সে। জোনাকিতে আছে মেয়েদের জন্য ৩টি সৌরভ-নেরোলি ব্লসম, ফ্রেসিয়া নাইটস আর ওরিয়েন্টাল জেসমিন। আর ছেলেদের জন্য আমারেত্তো ও স্যান্টাল টাবাক-এই ২টি সৌরভ। ‘জয় অব লাইট’ ট্যাগলাইনের জোনাকির শুরুটি হয়েছিল এই ৫টি ফ্রাগ্রেন্স রেঞ্জ দিয়ে। বাংলাদেশের সাদা ফুলের ঘ্রাণ মোহনীয়। দোলনচাঁপা, বেলি, গন্ধরাজ, রজনীগন্ধা, জুঁই৫টি সাদা ফুল থেকে অণুপ্রাণিত হয়েই পারফিউমগুলো ডিজাইন করা হয়েছে।

নাসরীন জামির বলেন, আমি চাই বিদেশি ডেলিগেট যারা বাংলাদেশে আসে তাদের হাতে বাংলাদেশি একটি পণ্য ধরিয়ে দিতে। সুগন্ধি মানুষের মনে প্রেম তৈরি করে, মানুষের ব্যক্তিত্বের পরিচয়ও বহন করে। তাই আমি বাংলাদেশি ব্র্যান্ডের পণ্য হিসেবে তাদের হাতে পারফিউম তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করি। 

বিশ্বমানের পারফিউম ব্র্যান্ড হিসেবে জোনাকিকে গড়ে তুলতে আশাবাদী নাসরীন জামির বলেন, আমি আশা করি বাংলাদেশেও একদিন উন্নতমানের পারফিউম বানানোর মতো ল্যাব তৈরি হবে। তখন আর বাইরে যেতে হবে না। ডিজাইন থেকে প্যাকেজিং সব আমাদের দেশেই হবে। আমি ভীষণ আশাবাদী। দেশে একটা কেমিক্যাল ল্যাব হবে, কেমিক্যাল ফ্যাক্টরি হবে, সেখানে আমরা কাজ করতে পারব। আর আমি সেই স্বপ্ন দেখি।

সম্প্রতি ভুটানের রাজা, ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রদূতসহ বিভিন্ন সময় বাংলাদেশে আসা বিভিন্ন দেশের কর্তাব্যক্তিদের প্রশংসা কুড়িয়েছে জোনাকির এই পারফিউম এবং তারা এই পারফিউম সংগ্রহ করেছেন বলেও দাবি করেন নাসরীন।

দেশের ইউনিক পণ্য বিশ্বের কাছে পরিচিত করাই জোনাকির একমাত্র লক্ষ্য। এরই ধারাবাহিকতায় জোনাকি শুধু পারফিউমই নয়, বর্তমানে তৈরি করছে ব্যতিক্রমী কিছু আতরও। এ ছাড়া বাংলার ঐতিহ্যবাহী মসলিন কাপড়, নারীদের নানান প্রসাধনী এবং দেয়ালিকাও রয়েছে জোনাকি ব্র্যান্ডের।

ইন্টারকন্টিনেন্টাল ঢাকায় নিজেদের ফ্ল্যাগশিপ স্টোর চালু করেছে দেশীয় সুগন্ধি ব্র্যান্ড জোনাকি ফ্রাগ্রেন্স। নিজস্ব সৌরভগুলোকে দেশি-বিদেশি মানুষের কাছে উপস্থাপন করার লক্ষ্যেই ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে প্রথম আউলেট চালু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। ২০২০ সালে চালু হলেও এতদিন শুধু সুপারশপ ও অনলাইনে পাওয়া যেত ব্র্যান্ডটি। এবার নিজস্ব স্টোরে মিলবে তাদের সকল পণ্য।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2024 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //