সোমবার থেকে সারাদেশে শীতের প্রকোপ বাড়তে পারে

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

আগামী সোমবার থেকে সারাদেশে শীতের প্রকোপ বাড়তে পারে এবং কমতে পারে রাতের তাপমাত্রা।

আগামী পাঁচদিনের জন্য দেয়া আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ কথা বলা হয়েছে। এছাড়া আগামী ৪৮ ঘন্টার আবহাওয়া পরিস্থিতির সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

আজ মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘন্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আজ বুধবার (৬ জানুয়ারি) রংপুর বিভাগের দু’এক জায়গায় হালকা থেকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। এ সময়ে অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে।

আবহাওয়াবিদ আব্দুল মান্নান বলেছেন, আগামী সপ্তাহে তাপমাত্রা কমে যেতে পারে। আসতে পারে শৈত্যপ্রবাহ। এরমধ্যে একটি তীব্র অর্থাৎ কোথাও কোথাও তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে যেতে পারে বলে আমরা আশঙ্কা করছি।

আবহাওয়া অধিদফতরের দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, জানুয়ারি মাসে স্বাভাবিকের চেয়ে কম বৃষ্টি হতে পারে। এই মাসে এক থেকে দুটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। এরমধ্যে একটি তীব্র, অর্থাৎ তাপমাত্রা ৪ থেকে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস হতে পারে। এ মাসে উত্তর, উত্তর-পূর্বাঞ্চল, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে এবং নদ-নদীর অববাহিকায় মাঝারি বা ঘন ও অন্য এলাকায় হালকা বা মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। ঘন কুয়াশা পরিস্থিতি কখনো কখনো দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

বড় এলাকা জুড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমে ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে চলে এলে তাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ; তাপমাত্রা ৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে নেমে এলে তাকে মাঝারি ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৪ থেকে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে হলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে বলে ধরা হয়।

আবহাওয়ার সিনপটিক অবস্থায় বলা হয়েছে, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বাড়তি অংশ ও এর কাছাকাছি এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

এছাড়া ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এসব এলাকার আকাশ পরিষ্কার থাকবে ও আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। এসময় উত্তর-পশ্চিম/উত্তর দিক থেকে ঘণ্টায় ০৫-১০ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হতে পারে। রাতের তাপমাত্রা অপরির্বতিত থাকতে পারে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh