বৈশাখের খরতাপে রাজশাহীতে তাপমাত্রা উঠল ৪১ ডিগ্রি

প্রত্যাশিত বৃষ্টিতে দুইদিনের স্বস্থির পর আবারো রাজশাহীর তাপমাত্রার পরদ বাড়ছে। থার্মোমিটারে তাপমাত্রার পারদ ৪১ ডিগ্রি ছুঁয়েছে। বেলা গড়াতেই রুদ্রমূর্তি ধারণ করছে রাজশাহীর প্রকৃতি। 

ঢাকা, রাজশাহী, রংপুর, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের সর্বত্র মৃদু থেকে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। আরো অন্তত দুইদিন এমন অস্বস্তিকর গরম থাকতে পারে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

রাজশাহী আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের জ্যেষ্ঠ পর্যবেক্ষক রাজীব খান জানান, কিছুটা বিরতি দিয়ে তাপমাত্রার পারদ বেড়েছে। গতকাল সোমবার (২৫ এপ্রিল) বিকেল ৪টায় রাজশাহীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ২৬ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

রাজশাহী ছাড়াও দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪১ ডিগ্রি ঈশ্বরদী ও চুয়াডাঙ্গায়।

গত রবিবার (২৪ এপ্রিল) বিকেল ৩টায় রাজশাহীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৪০ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এর আগের দিন শনিবার (২৩ এপ্রিল) ছিল ৩৮ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। 

চলতি মৌসুমে গেল বুধবার রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১.২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে উঠেছিল। এর আগে, ২০১৪ সালের ২৫ এপ্রিল রাজশাহীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছিল ৪১ দশমিক ২ ডিগ্রি  সেলসিয়াস।

তীব্র উষ্ণ আবহওয়ায় ঘরে-বাইরে কোথাও স্বস্তি নেয়। রমজান মাসে টানা তাপপ্রবাহে কষ্ট বেড়েছে মানুষের। গতকাল দুপুর গড়াতেই প্রধান সড়ক থেকে শুরু করে মাঠ-ঘাট ফাঁকা দেখা যায়। পথচারীরা গাছের ছায়া পেলেই একটু বিশ্রাম নিয়ে নিচ্ছন। মানুষের পাশাপাশি পশু-পাখিরাও হাঁসফাঁস করছে।

তাপমাত্রা ৩৬ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ওঠলে আবহাওয়াবিদরা তাকে মৃদু তাপপ্রবাহ বলেন। ৩৮ থেকে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস হলে তাকে বলা হয় মাঝারি তাপপ্রবাহ। আর তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি ছাড়িয়ে গেলে তাকে তীব্র তাপপ্রবাহ ধরা হয়।

এদিকে আবহাওয়ার আজ মঙ্গলবারের (২৬ এপ্রিল) পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়ার সাথে প্রবল বিজলী চমকসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকবে।


Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //