শেষের ভুলে পয়েন্ট হারাল পিএসজি, শীর্ষে ম্যানসিটি

ইনজুরির কারণে দলে ছিলেন না লিওনেল মেসি। তবে ভালোই খেলছিল মেসিবিহীন পিএসজি। পিছিয়ে পরেও দুই গোল করে এগিয়ে যায় ফ্রেঞ্চ চ্যাম্পিয়নরা। তবে শেষ মুহূর্তের গোলে হতাশা বাড়ে পচেত্তিনোর শিষ্যদের।

চ্যাম্পিয়নস লিগের ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচটি ২-২ গোলে ড্র হয়েছে। গ্রুপের অন্য ম্যাচে ক্লাব ব্রুজকে ৪-১ গোলে হারিয়ে শীর্ষে ম্যানচেস্টার সিটি।

বুধবার রাতে লাইপজিগের মাঠ রেড বুল অ্যারেনায় পিএসজির হয়ে জোড়া গোল করেন মিডফিল্ডার জর্জিনিয়ো ভাইনালডাম। এর আগে জার্মান দলটির বিপক্ষে সপ্তাহ দুয়েক আগে নিজেদের মাঠে ৩-২ গোলে জিতেছিল পিএসজি।

ম্যাচের অষ্টম মিনিটে লিড নেয় লাইপজিগ। সিলভার বাঁ দিক থেকে বাড়ানো ক্রসে কাছ থেকে ডাইভিং হেডে লাইপজিগের পক্ষে স্কোর করেন ফরাসি মিডফিল্ডার ক্রিস্টোফার এনকুকু।

২১তম মিনিটে দারুণ এক আক্রমণ থেকে সমতায় ফেরে পিএসজি। নেইমারের থ্রু বল ডি-বক্সে পেয়ে যান এমবাপে। ফরাসি ফরোয়ার্ড বল বাড়ান ছয় গজ বক্সের মুখে। ছুটে গিয়ে জালে পাঠান ডাচ ডিফেন্ডার ভাইনালডাম।

পরে ৩৯তম মিনিটে এগিয়ে যায় পিএসজি। ডি মারিয়ার কর্নারে মার্কিনিয়োসের হেড পাসে কাছ থেকে হেডে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন ভাইনালডাম। শুরুতে অফসাইডের পতাকা তুলছিলেন লাইন্সম্যান। ভিএআরে পাল্টায় সিদ্ধান্ত।

বিরতির পর নির্ধারিত সময়ের এক মিনিট বাকি থাকতে এনকুকুকে পিএসজির ডিফেন্ডার প্রেসনেল কিম্পেম্বে ডি-বক্সে ফেলে দিলে ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টি দেন রেফারি। সফল স্পট কিকে আসরে লাইপজিগকে প্রথম পয়েন্ট এনে দেন সোবোসলাই।

এদিকে ম্যানসিটির বড় জয়ে একটি করে গোল করেন ফিল ফোডেন, রিয়াদ মাহরেজ, রাহিম স্টার্লিং ও গাব্রিয়েল জেসুস। আর জন স্টোন্স করেন আত্মঘাতী গোল।

পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা ৪ ম্যাচে তিন জয়ে ৯ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে উঠেছে। সমান ম্যাচে ২টি করে জয় ও ড্রয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে নেমে গেছে পিএসজি। ক্লাব ব্রুজের ৪ ও লাইপজিগের ১ পয়েন্ট।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //