ICT Division

কাতার-সেনেগালের বাঁচা-মরার লড়াই

স্বাগতিক দেশ হিসেবে প্রত্যাশার ধারে কাছেও যেতে পারেনি কাতার। ইকুয়েডরের বিপক্ষে ম্যাচে প্রতিপক্ষের গোলবারেই কোন শট নিতে পারেনি। মনে হচ্ছিল নিজেদের মাঠে নয়, প্রতিপক্ষের কোন কঠিন মাঠে খেলছে তারা। 

কাতার-সেনেগাল, দুই দলের বিশ্বকাপ মিশনটা সুখকর হয়নি। হার দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করেছে দুই দলই। বিশ্বকাপের মঞ্চে টিকে থাকতে হলে আজকের ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই কাতার ও সেনেগালের সামনে। হারলেই ছিটকে যেতে হতে পারে বিশ্বকাপ থেকে। তাই দুই দলের কাছেই এই ম্যাচ বাঁচা-মরার লড়াই হয়ে দাঁড়িয়েছে। 

উদ্বোধনী দিনে ইকুয়েডরের কাছে ২-০ গোলে হেরেছিল কাতার। অন্যদিকে নেদারল্যান্ডসের সঙ্গে লড়াই জমিয়েও শেষ পর্যন্ত ২-০ গোলে হারতে হয়েছে সেনেগালকে। ‘বি’ গ্রুপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ইরানের বিপক্ষে মাঠে নামছে গ্যারেথ বেলের ওয়েলস। প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক দর্শকদের চাপ নিতে পারেননি কাতারের ফুটবলাররা। যে কারণে ইকুয়েডরের বিপক্ষে সেরা ফুটবল খেলতে পারেননি তাঁরা।

এবার সেনেগালের বিপক্ষে আর চাপে ভেঙে না পড়ে উদ্যমী ফুটবল খেলার প্রত্যাশা কাতারের স্প্যানিশ কোচ ফেলিক্স সানচেজের, ‘দল হিসেবে আমরা আশা করি, আমরা স্বাধীনভাবে ও চাপমুক্ত হয়ে খেলতে পারব। প্রথম ম্যাচের চেয়ে আরো উঁচু মানের ফুটবল খেলতে হবে।’ সাদিও মানেকে হারিয়ে খর্ব শক্তির দলে পরিণত হয়েছে সেনেগাল। এরপরও সেনেগালকে কঠিন চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিল আফ্রিকার চ্যাম্পিয়নরা। কাতারের বিপক্ষে ফিনিশিংয়ে আরো উন্নতির আশা কোচ আলিউ সিসের, ‘ডাচদের বিপক্ষে আমরা খারাপ খেলিনি; কিন্তু আক্রমণভাগে আরো উন্নতি করতে হবে আমাদের।’

এর আগে প্রথম ম্যাচে সেনেগালের বিপক্ষে ঘাম ঝরানো জয় দিয়ে বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করেছিলো নেদারল্যান্ডস। আজকের ম্যাচের জন্য সৌদির জয় থেকে অনুপ্রাণিত করেছে কাতার। দুই এশিয়ান সৌদি আরব ও জাপান নিজেদের প্রথম ম্যাচে চমকে দিয়েছে বিশ্বকাপকে। সাবেক দুই চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা ও জার্মানিকে হারিয়ে দিয়েছে তারা। অন্যদিকে কাতার ও ইরানের প্রথম ম্যাচের ফল তার উল্টো। হেরেছে দুই দলই। 

তবে আজ নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে কি জ্বলে উঠবে এশিয়ার এ দুই দল। ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে কাতার খেলবে সেনেগালের বিপক্ষে। বিশ্বকাপ ইতিহাসে প্রথম স্বাগতিক দল হিসেবে উদ্বোধনী ম্যাচে হেরেছে কাতার। তবে স্বস্তির বিষয় ইকুয়েডরের বিপক্ষে মাত্র দুই গোল হজম করে বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে ৫০ নম্বরে থাকা দল কাতার। স্বাগতিক দেশ হওয়ায় তাদের নিয়ে ঘরের সমর্থকদের বেশ আশা।

এশিয়ান বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কাতার। যে দলগুলোর সঙ্গে কাতার প্রায় নিয়মিত খেলে এশিয়ান অঞ্চলে তাদের মধ্যে সৌদি আরব, জাপানও আছে। এই দুটি দল বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচই জিতেছে। সেখান থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে আজ কাতার হারাতে চাইবে সেনেগালকে। কাতারের মিডফিল্ডার ইসমাইল মোহামেদ আরব দলের ভালো খেলার বিষয়টি টেনে জানিয়েছেন এ থেকে তারাও অনুপ্রাণিত। 

যদিও প্রথম ম্যাচে ইকুয়েডরের গোলমুখে কোনো শট লক্ষ্যে রাখতে পারেনি। তবুও সেনেগালিজ কোচ আলিউ সিসে কাতার শক্তিশালী দল বলছেন ‘আগের ম্যাচে র্যাংকিংয়ে আট নম্বর দলের বিপক্ষে আমরা খারাপ খেলিনি। তবে লক্ষ্য কাতার ম্যাচ। আমরা শক্তিশালী দলের বিপক্ষেই খেলতে যাচ্ছি।’ কাতার-সেনেগাল দু’দলেরই জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে।



সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //