চ্যাম্পিয়ন্স লিগ রিয়াল মাদ্রিদের

‘চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে খেলতে না, জিততে হয়’ – কথাটা আবারও মনে করিয়ে দিল রিয়াল মাদ্রিদ। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ যুগে এর আগে আট ফাইনাল খেলে কখনও হারেনি দলটা। গতকাল শনিবার (০১ জুন) সংখ্যাটা নয়ে উন্নীত করল দলটি। বরুসিয়া ডর্টমুন্ডকে ২-০ গোলে হারিয়ে রেকর্ড ১৫তম বারের মতো ইউরোপসেরা বনে গেল কোচ কার্লো অ্যানচেলত্তির দল। 

গত রাতে ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে অবশ্য প্রথমার্ধটা ছিল বরুসিয়া ডর্টমুন্ডেরই। ১৪ মিনিটে নিকলাস ফুলক্রুগের পাস থেকে সুযোগ পেয়ে গিয়েছিলেন ইউলিয়ান ব্রান্ট। তবে সে সুযোগটা তিনি কাজেই লাগাতে পারেননি। 

এরপর কারিম আদেয়েমি রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়াকে একা পেয়েও ব্যর্থ হলেন গোল করতে। প্রথমার্ধের শেষ অংশে এসে যখন ফুলক্রুগের শটটা ক্রসবারে লাগল, ম্যাচের নিয়তিটা তখনই হয়তো কিছুটা আঁচ করা যাচ্ছিল! 

প্রথমার্ধে একগাদা সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি ডর্টমুন্ড। তাই বিরতিতে দুই দল যায় ০-০ স্কোরলাইন নিয়ে। তবে এরপরই পরিস্থিতিটা একেবারে বদলে গেল।

রিয়াল মাদ্রিদের আক্রমণের ধার বাড়াল বিরতির ঠিক পর। বিদায়ী ক্লাব ফুটবল ম্যাচটা খেলতে নামা টনি ক্রুসের ফ্রি কিক দারুণ দক্ষতায় ঠেকান ডর্টমুন্ড গোলরক্ষক কোবেল। 

রিয়ালের গোলের অপেক্ষাটা শেষ হলো ৭৪ মিনিটে গিয়ে। কর্নার থেকে দানি কার্ভাহাল করলেন গোল। এরপর ৮৩ মিনিটে ভিনিসিয়াস জুনিয়রের গোল ম্যাচের নিয়তি নিশ্চিতই করে দেয়। শেষ বাঁশি বাজতেই রিয়াল মাদ্রিদ সমর্থকরা ফেটে পড়েন উল্লাসে। তাদের দল যে ১৫তম চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতে গেছে। প্রতিযোগিতার রেকর্ড এটি। রিয়ালের আধিপত্যটা পরিষ্কার হবে একটা তথ্যে। 

রিয়াল যতটা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছে, তার অর্ধেকেরও কম শিরোপা জিতেছে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতা দলটা। রিয়ালই যে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের রাজা, তাতে কি আর কোনো সন্দেহ আছে আপনার মনে?

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2024 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //