হায় হায় পার্টি হায় হায় করতেই থাকুক: প্রধানমন্ত্রী

সমালোচকদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যারা নাই নাই, গেল গেল, হায় হায় করে বেড়াচ্ছে, এই হায় হায় পার্টি হায় হায় করতেই থাকুক। মাঝে মাঝে একটু তাদের তো বলতে দিতে হবে। আর আমরা আমাদের কাজ করে যাই, দেশ এগিয়ে যাক। দেশ এগিয়ে যাবে, জনগণের ওপর আমাদের ভরসা আছে। জনগণ আমাদের পাশে আছে।

রবিবার (২৪ জুলাই) জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদযাপন ও জাতীয় মৎস্য পদক- ২০২২ প্রদান অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের জাতির পিতা বলে গেছেন আমাদের কেউ দাবায় রাখতে পারবে না। আমিও বলছি আমাদের কেউই দাবায় রাখতে পারবে না। শত বাধা অতিক্রম করে আমরা পদ্মা সেতু নিজস্ব অর্থায়নে বাস্তবায়ন করেছি। আমরা বিশ্বকে দেখিয়ে দিয়েছি আমরাও পারি।

তিনি বলেন, আমি সরকার গঠন করে গবেষণার ওপর সব থেকে বেশি গুরুত্ব দিই। তখন হয়তো একটা-দুটা বিষয়ে গবেষণা হতো। আমরা ৯৬ সালে বাগেরহাটে চিংড়ি গবেষণা ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করি। জাতির পিতার উদ্যোগ ছিল, পরবর্তীতে চাঁদপুরে ইলিশ গবেষণা ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠিত হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশীয় মাছ, আমাদের নদী-নালা-খাল-বিলে প্রাকৃতিকভাবে হতো, অনেক মাছ কিন্তু হারিয়ে যাচ্ছে। সেই মাছগুলোকে খুঁজে বের করা এবং এর ওপর গবেষণা করা...আমরা সচারাচর যেসব মাছ নিজেরা গ্রহণ করি, সেই মাছগুলোর ওপর আরও ব্যাপক গবেষণার কাজ হাতে নিই। তার সাফল্য আজ বাংলাদেশ পাচ্ছে। যে কারণে মিষ্টি পানির মাছ উৎপাদনে আমরা স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করতে পেরেছি। দেশীয় প্রজাতি, বিলুপ্ত প্রজাতির অনেক মাছ এখন গবেষণার মাধ্যমে ফিরে আসছে। যেটা আমাদের পুষ্টির চাহিদা পূরণ করছে, আবার ব্যাপক হারে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করছে।

তিনি আরো বলেন, সবচেয়ে নিরাপদ পুষ্টি পাওয়া যায় মাছ থেকে। যেটা মাংস থেকে হয় না। মাছের যে আবাসস্থল অর্থাৎ অভয়ারণ্য তৈরি করা- এগুলোর দিকে দৃষ্টি দিতে হবে। পানির প্রবাহটা ভালো থাকা, পানি যাতে দূষণ না হয় সেদিকে খেয়াল রাখা। আমাদের যে চাহিদা সে চাহিদার চেয়ে অনেক বেশি মাছ আমরা এখন উৎপাদন করতে পারি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের চাহিদার চেয়ে অনেক বেশি মৎস্য আমরা এখন উৎপাদন করতে পারি। একজন মানুষ ৬২ গ্রাম মাছ গ্রহণ করলেই সে আমিষ পেল। সেখানে আমরা তার থেকে বেশি মাছ এখন খাওয়ার সুযোগ পাই। এত মাছ আমাদের উৎপাদন হচ্ছে। আমি মনে করি যে, এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত সৌভাগ্যের বিষয়। তা ছাড়া মাছের যখন মৌসুম আসে যেমন ইলিশ মাছের ডিম পাড়ার সময়, জাটকা যাতে না ধরে; আমরা মৎস্য চাষিদের নানা ধরনের প্রণোদনা দিয়ে থাকি এবং বিকল্প কর্মসংস্থানের ব্যবস্থাও করেছি। খাঁচার মধ্যে মাছ চাষের ব্যবস্থাও আমরা করে দিয়েছি। নতুন নতুন কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা আমরা করে যাচ্ছি।

অনুষ্ঠানে মৎস্য খাতে বিশেষ অবদানের জন্য সাতটি প্রতিষ্ঠানকে স্বর্ণপদক দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে স্বর্ণপদক তুলে দেন কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //