বন্যায় মৃত্যু বেড়ে ১২৯

দেশের বন্যাকবলিত এলাকায় নানান রোগে আক্রান্ত হয়ে ও বন্যাসৃষ্ট দুর্ঘটনায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরো দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২৯ জনে। গত ১৭ মে থেকে ২৪ জুলাই পর্যন্ত ডায়রিয়া, সাপের কামড়, পানিতে ডুবে, ভূমিধ্বসে এবং নানা আঘাতজনিত কারণে এসব মৃত্যু হয়েছে।

রবিবার (২৪ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের ইনচার্জ ডা. মো. জাহিদুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ১৭ মে থেকে ২৪ জুলাই পর্যন্ত সিলেট বিভাগে সবচেয়ে বেশি ৭৩ জনের মৃত্যু হয়েছে, ময়মনসিংহ বিভাগে হয়েছে ৪৩ জনের, রংপুর বিভাগের ১২ জনের এবং ঢাকা বিভাগে রয়েছেন একজন।

আর জেলা ভিত্তিক পরিসংখ্যানে সিলেট জেলায় মৃত্যু হয়েছে ২০ জন, সুনামগঞ্জে ২৯ জন, হবিগঞ্জে ৮ জন, মৌলভীবাজারে ১৬ জন, ময়মনসিংহে ৬ জন, নেত্রকোণায় ২০ জন, জামালপুরে ১০ জন, শেরপুরে ৭ জন, লালমনিরহাট জেলায় ৭ জন, কুড়িগ্রামে ৫ জন এবং টাঙ্গাইল জেলায় একজনের মৃত্যু হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, দেশে সবচেয়ে বেশি ১০১ জনের মৃত্যু হয়েছে পানিতে ডুবে। এ সময় বজ্রপাতে মারা গেছেন ১৬ জন, সাপের কামড়ে ২ জন, ডায়রিয়ার একজন এবং অন্যান্য কারণে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

অধিদপ্তরের তথ্যমতে, দেশে এ পর্যন্ত বন্যার কারণে পানিবাহিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ২৩ হাজার ৭৯৮ জন। এদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১৩ হাজার ৯৮৪ জন ডায়রিয়ায় ভুগেছেন।

এ ছাড়া আরটিআইতে (শ্বাসতন্ত্রের প্রদাহ) ১ হাজার ২২৬জন, বজ্রপাতে ১৬ জন, সাপের কামড়ে ৩৩, পানিতে ডোবা ৭৭ জন, চর্ম রোগে ২ হাজার ৮৮৯ জন, চোখের প্রদাহে ৪০৭ জন, বিভিন্নভাবে আঘাত পেয়েছেন ৬৬৯ এবং অন্যান্য সমস্যায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৫৩৪ জন।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //