পোর্টাল ও আইপিটিভির ছড়ানো ‘গুজবে’র তথ্য চেয়েছে সরকার

অনিবন্ধিত অনলাইন পোর্টাল, আইপিটিভি ও ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে ‘গুজব’ ছড়ানোর ব্যাপারে জেলা প্রশাসকদের সতর্ক থাকার নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। পাশাপাশি এ সংক্রান্ত তথ্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে জানাতে বলা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে ডিসি সম্মেলনের তৃতীয় দিনে জেলা প্রশাসকদের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেখা যায় জেলাপর্যায়ে অনেকগুলো অনিবন্ধিত অনলাইন পোর্টাল, আপিটিভি আছে, ইউটিউব আছে; সেখানে যারা কাজ করে তারা আবার নিজেদের সাংবাদিক বলে পরিচয় দেন। এসব প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে ভুল-গুজব-বিভ্রান্তি ছড়ায়৷ এটি বড় চ্যালেঞ্জ।

এ ব্যাপারে ডিসিদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, তারা যদি দেখেন কেউ বিভ্রান্তি, গুজব, অসত্য, ভুল ছড়িয়ে হানাহানি করছে, বা কারো বিরুদ্ধে ব্যক্তি আক্রমণ করে তা আবার অন্য এজেন্ডা বাস্তবায়নে ব্যবহার করছে, তবে তা ত্বরিৎ আমাদের জানাতে বলেছি।

তিনি বলেন, সেই সাথে সত্য কী, তা প্রচার করতে বলেছি। গুজব সোশ্যাল মিডিয়াতে রটানো হলে সত্যটাও সোশ্যাল মিডিয়াতেই যেন বলা হয়, সে ব্যাপারে তাদের (ডিসি) বলা হয়েছে।

আইপিটিভি বা অনলাইনে গুজবের বিরুদ্ধে ডিসিদের পদক্ষেপ কেমন হবে- এমন প্রশ্নে হাছান মাহমুদ বলেন, তারা চাইলেই ব্যবস্থা নিতে পারে না, প্রক্রিয়া আছে। বিটিআরসিকে জানাতে হয়। মনে রাখতে হবে- গুজব ছড়ায় দ্রুত, কিন্তু ব্যবস্থা নিতে অনেক সময় লাগে।

দেশে নিবন্ধিত সংবাদমাধ্যমের সংখ্যা জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সর্বসাকুল্যে আমরা ১২টি আইপিটিভি, ১৭০টি অনলাইন, দৈনিক পত্রিকার অনলাইন ১৭০টি, টেলিভিশনের কয়েকটি অনলাইনকে রেজিস্ট্রেশন দিয়েছি। বাকিদের কারো রেজিস্ট্রেশন নেই।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2023 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //