ভেজা-স্যাঁতস্যাঁতে মাস্কে লুকিয়ে আছে বিপদ

করোনা! এই মরণ ভাইরাসের দাপটে আতঙ্কে রয়েছে সারাবিশ্ব। কেবল আতঙ্ক নয়, আমাদের নিত্যদিনের চলাফেরায় ঘটছে ব্যতিক্রিম। এর মধ্যে মাস্কবদ্ধ জীবন অন্যতম। বাইরে বেরোলে মাস্ক ব্যবহার করা আবশ্যক। আর কেউ যদি মাস্ক না পড়ে, তবে শাস্তির ব্যবস্থাও চালু হয়েছে।

কিন্তু এ সবকিছুতেই মুশকিল করে দিয়েছে বর্ষার শ্রাবণ ধারা। এছাড়া মাস্কের ভেতরে জমছে বিন্দু বিন্দু ঘাম, সেটাও বেশ ক্ষতিকর।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্যাঁতস্যাঁতে মাস্ক মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাসের সহজ প্রবেশপথ হয়ে উঠতে পারে। এমনকি তিন, চার কিংবা পাঁচ লেয়ারের মাস্কেও রেহাই নেই।ভিজে মাস্কে শরীরে জীবাণু ঢোকার প্রবল সম্ভাবনা। তাছাড়া মাস্কের ভেজা অংশ ভাইরাস তৈরির জায়গাও হয়ে উঠতে পারে।


তাহলে উপায়? এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কিছু করার নেই। এই আবহাওয়ায় একটি অতিরিক্ত মাস্ক সঙ্গে রাখতেই হবে। সেক্ষেত্রে ডিসপোজেবেল মাস্ক থাকলে ভালো।

ইতোমধ্যেই বাজারে মিলছে ওয়াটার প্রুফ মাস্ক। কিন্তু সেগুলো ভাইরাস রোধে কতটা কার্যকরী, তা নিয়ে এখনো নিশ্চিত হওয়ার মতো তথ্য প্রকাশ্যে আসেনি। তবে, বর্ষায় কোন মাস্ক কার্যকরী হবে, তা যাচাইয়ে সম্প্রতি মুম্বাইয়ে একটি ওয়েবিনারে যোগ দিয়েছিলেন ৫০০ বিজ্ঞানী, চিকিৎসক, স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ, ইঞ্জিনিয়ার প্রযুক্তিবিদরা। সেখানে এই আবহাওয়ায় ব্যবহারের জন্য সুতি কিংবা কাপড়ের মাস্কের তুলনায় সার্জিক্যাল মাস্ককে কার্যত সার্টিফাই করেছেন অনেকে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh