জামিন নাকচ, কারাগারে থাকতে হচ্ছে টিকটকার অপুকে

টিকটক ভিডিও নির্মাতা ইয়াসীন আরাফাত অপু ওরফে অপু ভাইয়ের জামিন নাকচ করে দিয়েছেন আদালত। ফলে তাকে এখন কারাগারেই থাকতে হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোর্শেদ আল মামুন ভূঁইয়া এ আদেশ দেন। আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) মোহাম্মদ জালাল এ বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

মোহাম্মদ জালাল বলেন, আজ আদালতে টিকটকার অপু জামিনের আবেদন করলে, আদালত শুনানি শেষে তার জামিনের আবেদন নাকচ করে দেন।

গত ৩ আগস্ট টিকটকার অপুকে গ্রেফতার করে উত্তরা পূর্ব থানা পুলিশ। সে সময় গ্রেফতার করা হয় তার এক সহযোগী নাজমুলকেও। এরপরে অপুকে গত ৪ আগস্ট ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) আজিজ তালুকদার তিনদিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। কিন্তু ওই দিন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বেগম মাহমুদা আক্তার রিমান্ডের আবেদন নাকচ করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

জানা যায়, গত রবিবার উত্তরা ছয় নম্বর সেক্টরের আলাওল অ্যাভিনিউয়ের রাস্তা দখল করে টিকটক অপু ও তার বেশ কয়েকজন সহযোগী আড্ডা দিচ্ছিলেন। সে সময় মেহেদী হাসান নামের এক ব্যক্তি ও তার বন্ধুরা গাড়ি নিয়ে ওই সড়ক ধরে যাচ্ছিলেন। সে সময় মেহেদী রাস্তা ছাড়তে হর্ন দেন। কেন হর্ন দেয়া হলো তা নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে।

পরে অপু ও তার সহযোগীরা মিলে মেহেদী হাসান ও তার বন্ধুদের মারধর করেন। মারধরের ঘটনার সময় মেহেদী হাসানদের মুঠোফোনও ছিনতাই করা হয় বলে মামলায় উল্লেখ আছে।

পরদিন অর্থাৎ গত সোমবার দুপুরে ভুক্তভোগীর বাবা এস এম মাহবুব আলম বাদী হয়ে মারামারি ও ছিনতাইয়ের অভিযোগ এনে উত্তরা পূর্ব থানায় আটজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৩০ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় অপু ও সহযোগী নাজমুলকে উত্তরা ৬ নম্বর সেক্টরের আলাওল অ্যাভিনিউয়ের ১২ নম্বর বাড়ির পাশের সড়ক থেকে গ্রেফতার করা হয়।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh