৩ মাসের মধ্যে বুড়িগঙ্গার ৭৪ স্থাপনা ভাঙার নির্দেশ

রাজধানীর হাজারীবাগ ও কামরাঙ্গীরচর এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীর অংশ ‘আদি চ্যানেল’ এর জায়গায় সিএস/আরএস জরিপ অনুসারে চিহ্নিত ৭৪টি স্থাপনা, মাটি ভরাট এবং দখল তিন মাসের মধ্যে উচ্ছেদের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর এবং বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

ঢাকার জেলা প্রশাসক এবং বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যানকে এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে। পুলিশের মহাপরিদর্শক, ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার এবং র‌্যাবের ডিজিকে অভিযানে সব ধরনের সহযোগিতা করতে বলা হয়েছে।

আদালতে আবেদনের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দ কুমার রায়। পরিবেশ অধিদফতরের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট আমাতুল করিম।

পরে মনজিল মোরসেদ সাংবাদিকদের জানান, বুড়িগঙ্গার নদীর আদি চ্যানেল (হাজারীবাগ ও কামরাঙ্গীরচর) এলাকায় দখলকৃত ৭৪টি অবৈধ স্থাপনা তিন মাসের মধ্যে উচ্ছেদ করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট, যার মধ্যে রয়েছে টিনশেড বাড়ি, চারতলা ভবন, একতলা ভবন, মাটি ভরাট, মসজিদের আংশিক স্থাপনাসহ ব্যক্তি মালিকানাধীন বাড়ি, সরকারি হাসপাতাল, কারখানা ও সুপার মার্কেট। আদালতের আদেশ অনুসারে পদক্ষেপ নিয়ে আগামী ২৬ জুনের মধ্যে ঢাকার জেলা প্রশাসক এবং বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যানকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ একটি জনস্বার্থের মামলায় বুড়িগঙ্গা নদীর আদি চ্যানেল এলাকায় নদীর জায়গা দখলকারীদের চিহ্নিত করার জন্য জরিপের নির্দেশনা চেয়ে আবেদন দাখিল করেন।

ওই আবেদনের শুনানি নিয়ে গত বছরের ১২ অক্টোবর জরিপ করার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। নির্দেশনা অনুসারে জরিপের জন্য ১০ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয় এবং কয়েকমাস জরিপ শেষে নদীর জায়গা দখলকারীদের তালিকা হলফনামা আকারে আদালতে দাখিল করা হয়।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh