ল্যাব অ্যাটেনডেন্টদের পদোন্নতির বৈধতা নিয়ে রুল

সুপ্রিম কোর্ট ভবন। ফাইল ছবি

সুপ্রিম কোর্ট ভবন। ফাইল ছবি

মেডিকেল টেকনোলজিস্ট পদে ল্যাব অ্যাটেনডেন্টদের পদোন্নতি কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে ১৫ জন ল্যাব অ্যাটেনডেন্টকে মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ল্যাবরেটরি) পদে পদোন্নতি দিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের আদেশ কেন অবৈধ হবে না, রুলে তা-ও জানতে চাওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) বিচারপতি মো. জেবিএম হাসান এবং বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন।

আইনজীবীরা জানান, বাংলাদেশ স্বাস্থ্য বিভাগীয় নন-মেডিকেল কর্মচারী নিয়োগ বিধিমালা-২০১৮ এর শিডিউল ১ এর ৩০ নম্বর ক্রমিকে প্রদত্ত ল্যাব অ্যাটেনডেন্টদের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ল্যাবরেটরি) পদে পদোন্নতির বিধান চ্যালেঞ্জ করে ইতোপূর্বে বেকার অ্যান্ড প্রাইভেট সার্ভিসেস মেডিকেল টেকনোলজিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের (বিপিএসএমটিএ) সভাপতি মো. শফিকুল ইসলামসহ চারজন মেডিকেল টেকনোলজিস্ট হাইকোর্টে রিট করেন।

রিটের পর ২০১৮ সালের ২ জুলাই রুল জারি করা হয়। এ রুল বিচারাধীন থাকা অবস্থায় তথ্য গোপন করে ল্যাব অ্যাটেনডেন্টরা রিট পিটিশন দায়ের করেন এবং সেই রিটের সূত্র ধরে তাদের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ল্যাবরেটরি) পদে স্বাস্থ্য অধিদফতর পদোন্নতি দেয়। এ পদোন্নতি চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে সম্পূরক আবেদন দায়ের করা হয়। সোমবার আবেদনের শুনানি নিয়ে তাদের পদোন্নতি কেন অবৈধ হবে না, তা নিয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

আদালতে রিটের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট ইয়ারুল ইসলাম এবং রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //