শাশুড়িকে হত্যার দায়ে জামাতার ৪০ বছরের কারাদণ্ড

জেলা ও দায়রা জজ আদালত

জেলা ও দায়রা জজ আদালত

কক্সবাজারের টেকনাফে শাশুড়িকে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা এবং দায়ের কোপে শ্যালিকার হাত বিচ্ছিন্ন করার ৮ বছর পর শামসুল আলম নামের একজনকে ৪০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে শামসুল আলমের উপস্থিতিতেই শাশুড়িকে হত্যার দায়ে ৩০ বছর এবং শ্যালিকার হাত বিচ্ছিন্ন করার অপরাধে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইল।

২০১৩ সালের ১১ ডিসেম্বর দিন দুপুরে সীমানা বিরোধের জেরে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের খোন্দকার পাড়ায় ওই ঘটনা ঘটে। সাজাপ্রাপ্ত শামসুল একই গ্রামের মৃত জহির আহম্মদ মিস্ত্রীর ছেলে।

নিহতের স্বামী ও মামলার বাদী আবদুল গফুর বলেন, শামসুল আলম আমার মেয়ের স্বামী ও আমার প্রতিবেশী। তাদের সাথে আমাদের সীমানা বিরোধ ছিলো। সেই বিরোধের জেরেই প্রকাশ্যে দিবালোকে আমার স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা এবং আমার ছোট মেয়ের হাত বিচ্ছিন্ন করে শামসুল। এনিয়ে আমি মামলা করি। বুধবার তার রায় হয়েছে।

কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সরকারী কৌসুলি (পিপি) ফরিদুল আলম বলেন, হত্যা ও হত্যা চেষ্টা আইনের ৩টি ধারায় শামসুল আলম পৃথকভাবে ৪০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।


মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //