প্রবীণ মা-বাবা ও আত্মীয়-পরিজন

ষাটোর্ধ্ব ব্যাক্তি যারা ডায়বেটিক, হার্টের সমস্যা, কিডনি সমস্যা অথবা অন্য রোগে ভুগছেন, তাদের করোনা আক্রান্তের ঝুঁকি বেশি। বাংলাদেশে ১ কোটির বেশি মানুষ ৬০ বছরের ওপরে। আমাদের দেশ অর্থনৈতিকভাবে উন্নতি করলেও অনেক লোক এখনো দারিদ্র্যসীমার নিচে অবস্থান করছেন। আরেকটি বিষয় খেয়াল করলে দেখা যায়, একক পরিবার দিন দিন বাড়ছে। এই একক পরিবারের বয়স্ক লোকজন অনেকসময় সহায় সম্বল হারিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করেন। এই করোনাকালে খুব বেদনাদায়ক কিছু ঘটনা আমাদের চোখে পড়েছে। অর্থবিত্ত থাকার পরেও অনেক বৃদ্ধ মা-বাবা তাদের সন্তানদের কাছে অবহেলিত। চাকরিজীবী সন্তানদের কেউ কেউ গ্রামে থাকা বৃদ্ধ মা-বাবার খবর নেওয়ার কথা ভুলে যান। যে মা-বাবা এত কষ্ট করে ছেলেমেয়েকে লিখাপড়া শিখিয়েছেন, সেই ছেলেমেয়ে মা-বাবার বৃদ্ধ অবস্থায় পাশে থাকতে পারছে না। ৮০ বছর বয়সী মা অথবা বাবা তার ছেলেমেয়েদের নিয়েই বাকি দিনগুলো কাটাতে চান। বিভিন্ন সময় পত্রিকার খবর দেখি—উচ্চপদস্থ চাকরিজীবী বা বড় ব্যবসায়ী তার মা-বাবাকে দেখাশোনার দায়িত্ব নিচ্ছেন না। কেন এরকম হবে বুঝতে পারি না। সন্তান হিসেবে আমাদের প্রথম ও প্রধান দায়িত্ব মা-বাবাকে শ্রদ্ধা-ভক্তি করা। আমরা আমাদের মা-বাবাকে ঠিকমতো শ্রদ্ধা করলে আমাদের ছেলেমেয়েরাও তা শিখবে। আমরা যখন বৃদ্ধ হব, ছেলেমেয়েরা সেই শিক্ষা কাজে লাগাবে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh