শিক্ষকের মর্যাদা সমুন্নত করতে হবে

শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড। সেই মেরুদণ্ডটি তৈরির কাজ করেন দেশের শিক্ষক সমাজ। কিন্তু দেশে একের পর এক যেভাবে শিক্ষক লাঞ্ছিত ও  অপমানিত হচ্ছে, তা আমাদের আতঙ্কিত করে তুলছে। যে শিক্ষক একসময় ছাত্রদের শ্রদ্ধায়, ভালোবাসায় সিক্ত হতেন- আজ সেখানে শোনা যায় শিক্ষার্থীর পিটুনিতে শিক্ষকের মৃত্যু, অবরুদ্ধ হওয়া, জুতার মালা পরানো এ ধরনের খবর। পিতা-মাতার পর যে শিক্ষকের অবস্থান ছিল, আজ তার মর্যাদা ভূলুণ্ঠিত।

এ অবস্থার জন্য দায়ী কে এবং কী তা এখন খুঁজে দেখার সময় এসেছে। নানা রকম গবেষণা এবং দিকনির্দেশনার পরও দেশের প্রচলিত শিক্ষাব্যবস্থায় গলদ রয়েই গেছে। দেশে এখনো একমুখী শিক্ষাব্যবস্থা চালু করা যায়নি। একই দেশের মধ্যে একাধিক ধারার শিক্ষাব্যবস্থা মানুষকে বিভক্ত করে রাখছে। যার প্রভাব পড়ছে শিক্ষার মানে এবং শিক্ষার্থীর মননে। এ অবস্থার অবসান দরকার। 

শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার এসব ঘটনায় শুধু শিক্ষা ব্যবস্থা নয়,  সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষও কম দায়ী নন। মনে রাখতে হবে শিক্ষকের মর্যাদা যত কমবে, শিক্ষার মানও তত কমবে। তাই শিক্ষকের মর্যাদা কোনোভাবেই যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে।


আনওয়ার আহমেদ, লালমাটিয়া, ঢাকা।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //