রমজানের প্রস্তুতি

রমজানের রোজা রাখা ফরজ। পবিত্র কোরআন ও হাদিসে এ বিষয়ে স্পষ্ট নির্দেশনা রয়েছে। এ নির্দেশনা প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্ক নারী-পুরুষের জন্য।

আর রমজান মাস যথার্থভাবে উদযাপনের জন্য একটু আগে থেকেই এর প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হয়। রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর সময়ে রমজান যতই ঘনিয়ে আসত, রমজান নিয়ে তাঁর আগ্রহ, আলোচনা ও আমলের মাত্রা ততই বেড়ে যেত এবং তিনি সাহাবিদের রমজানের প্রস্তুতি গ্রহণের নির্দেশ দিতেন। 

নিম্নে প্রস্তুতিমূলক কয়েকটি কাজ-

আমলের প্রস্তুতি

রমজান মাস যেহেতু আমলের মাস, তাই এ মাসের মুখ্য বিষয় হওয়া দরকার আমল। কীভাবে আমলের পাল্লা ভারী হবে, পরকালে নাজাত পাওয়া যাবে- সে উদ্দেশ্যে রমজানকে অতিবাহিত করাই হবে একজন মুমিনের আসল কাজ। রমজানের শুরুতেই একটা খসড়া তৈরি করা যে কোন আমল কখন করবেন। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ঠিকমতো জামাতের সঙ্গে আদায় করার পাশাপাশি কয় খতম কোরআন তেলাওয়াত করবেন, কত হাজার কালেমা, জিকির আজকার করবেন- তার একটা লক্ষ্য নির্ধারণ করা। বিশেষ করে রমজানের শেষ দশকে ইতেকাফের জন্য পূর্ণ প্রস্তুতি গ্রহণ করা। যারা কোরআন তেলাওয়াত জানেন না অথবা শুদ্ধ করে তেলাওয়াত করতে পারেন না, তারা এই রমজানে কোরআন শেখার কাজটা শেষ করতে পারেন। প্রতিদিন তারাবির নামাজ ঠিকমতো আদায় করা। 

পারিবারিক প্রস্তুতি

রমজানকে সামনে রেখে পারিবারিক প্রস্তুতি আমরা এভাবে নিতে পারি। পারিবারিক কেনাকাটা, বাজার সদাই আত্মীয় বাড়ি যাওয়া রমজানের পূর্বেই সেরে ফেলা। যাতে রমজানে উটকো ঝামেলা থেকে নিজেকে রক্ষা করে নিমগ্ন হয়ে ইবাদত করা যায়। সেই সঙ্গে ঘরের সদস্যদের নিয়ে প্রতিদিন রমজানের ফাজায়েল-মাসায়েল আলোচনা করা। এতে করে সবার মধ্যে রমজানের গুরুত্ব চলে আসবে। পরিবারের প্রতিটি প্রাপ্তবয়স্ক সদস্য যেন রোজা পালন করে সেই বিষয় খেয়াল রাখা। রোজা থাকা অবস্থায় ঝগড়া-বিবাদ এড়িয়ে চলা ও অশ্লীল কাজ থেকে বিরত থাকা। 

সামাজিক প্রস্তুতি

সমাজের সবাইকে নিয়ে সচেতনতামূলক প্রচার চালানো। গরিব-অসহায় ব্যক্তিদের রমজানের আগেই সম্মিলিত বা এককভাবে সহায়তা করা। তাদের রমজানটাও যেন দুশ্চিন্তামুক্ত হয়ে ইবাদতের মাধ্যমে অতিবাহিত হয় সেই ব্যবস্থা করা।

অফিস প্রস্তুতি

যারা অফিস-আদালতে কাজ করেন, সম্ভব হলে কিছু কাজ অগ্রিম করে রাখা। অথবা প্রতিদিনের কাজ প্রতিদিন করে রাখা। ফলে কাজের বাড়তি চাপ কম থাকার দরুন আপনার সারাদিন টেনশন মুক্ত থাকবে। সেই সঙ্গে অফিসের ফাঁকে ফাঁকে নামাজ, তেলাওয়াতসহ গুরুত্বপূর্ণ কিছু আমলের পরিবেশ করে রাখা।

ব্যবসায়িক প্রস্তুতি

যারা ব্যবসা করেন, তারা আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের একটি গুরুত্বপূর্ণ সুন্নাত পালন করছেন। রমজান মাসে অন্তত দ্রব্যমূল্য ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে রাখা। সিন্ডিকেট করে মূল্য বৃদ্ধি থেকে বিরত থাকা। আল্লাহর রাসূলের (সা.) পক্ষ থেকে ব্যবসায়ীদের প্রতি যে সুসংবাদ- ‘সত্যবাদী, বিশ্বস্ত ব্যবসায়ী কিয়ামতের দিন নবী, সিদ্দীকীন, শহীদরা ও নেককারদের সঙ্গে থাকবেন।’ এটা অর্জনের চেষ্টা করা। এছাড়াও মেহমানদারি, অন্যের প্রতি সহনশীল আচরণ, দান-সদকা, গুনাহের মাধ্যমগুলো এড়িয়ে চলার প্রতি গুরুত্বারোপ করা। সন্তান-সন্ততি, পরিবার-পরিজনদের হক আদায়ে সচেষ্ট থাকা।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh